মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নেওয়া সবচেয়ে বড় পাওয়া

ঢাকা, ০৭ জানুয়ারী, (ডেইলি টাইমস ২৪):   

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কাজের মাধ্যমে মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নেওয়া একজন রাজনীতিকের জীবনে সবচেয়ে বড় পাওয়া।

রোববার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রয়াত মন্ত্রী, মেয়র, প্রাক্তন ডেপুটি স্পিকার ও সংসদ সদস্যদের জন্য আনীত শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর সংসদে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়। এরপর এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রয়াত মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী ছায়েদুল হক ও সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফা ব্যক্তিজীবনে সততা, নিষ্ঠা ও একাগ্রতার জন্য মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন। মানুষ মরণশীল, মৃত্যু অবধারিত, সবাইকে মরতে হবে। কিন্তু মানুষের কাছ থেকে সম্মান পাওয়া বড় পাওয়া, বড় অর্জন। রাজনীতিবিদরা সৎ, নিষ্ঠাবান হলে দেশের উন্নতি হয়।

তিনি আরো বলেন, ছায়েদুল হকের মতো একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান মন্ত্রী পেয়েছিলাম। তিনি দক্ষতা ও সততার সঙ্গে মন্ত্রণালয় চালিয়ে দেশের উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রেখেছেন। দেশের মৎস্যসম্পদ উন্নয়নে তার ভূমিকা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০১ সালের ষড়যন্ত্রের নির্বাচনেও জনপ্রিয়তার কারণে ছায়েদুল হক সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তত্ত্বাবধায়ক সরকার সব ধরনের প্রচেষ্টা করেও নির্বাচনে তাকে হারাতে পারেনি।

সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফাকে স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, গোলাম মোস্তাফা তৃণমূলের নেতা ছিলেন। তিনি স্কুলে শিক্ষকতা করতেন। প্রত্যন্ত অঞ্চলে পড়ে থেকে সবসময় আওয়ামী লীগের জন্য কাজ করতেন।  তৃণমূলের মানুষের সুখে-দুখে সব সময় পাশে থাকতেন।