ইকুয়েডরের নাগরিকত্ব পেলেন অ্যাসাঞ্জ

ঢাকা, ১২ জানুয়ারী , (ডেইলি টাইমস ২৪):

লাখ লাখ গোপন নথি ফাঁস করে হইচই ফেলে দেওয়া ওয়েবসাইট উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ ইকুয়েডরের নাগরিকত্ব পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার ইকুয়েডরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানিয়েছেন।

এনবিসির খবরে বলা হয়, অ্যাসাঞ্জ পাঁচ বছরেরও বেশি সময় ধরে লন্ডনে ইকুয়েডরের দূতাবাসে আছেন। গ্রেপ্তার এড়াতে ইকুয়েডরের রাজনৈতিক আশ্রয়ে ওই দূতাবাসে অবস্থান করছেন তিনি। সম্প্রতি তাঁকে কূটনৈতিক মর্যাদা দিতে লন্ডনকে অনুরোধ জানায় ইকুয়েডর। লন্ডন তা নাকচ করায় অ্যাসাঞ্জকে নাগরিকত্ব দিল ইকুয়েডর।

অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত অ্যাসাঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র সরকারের বহু অতি গোপনীয় নথি উইকিলিকসে ফাঁস করে দিয়ে ঝড় তোলেন। এর কিছুদিন পর সুইডেনে তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়। ওই মামলায় বিচারের জন্য যুক্তরাজ্য সরকার তাঁকে সুইডেনের কাছে হস্তান্তর করতে যাচ্ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে লন্ডনে ইকুয়েডরের দূতাবাসে আশ্রয় নেন অ্যাসাঞ্জ। অ্যাসাঞ্জ ও তাঁর শুভাকাঙ্ক্ষীদের আশঙ্কা ছিল, সুইডেনে ফেরত পাঠানো হলে সেখান থেকে তাঁকে যুক্তরাষ্ট্রে পাঠিয়ে দেওয়া হবে এবং নথি ফাঁসের জন্য তাঁকে দণ্ডিত করা হবে।

সুইডেনে অবশ্য অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে সেই মামলা প্রত্যাহার করা হয়েছে। লন্ডনে জামিনের শর্ত লঙ্ঘন করার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। দূতাবাস থেকে বের হলেই তাঁকে গ্রেপ্তার করতে পারবে ব্রিটিশ পুলিশ। এ কারণেই অ্যাসাঞ্জ সেখানেই আছেন।