আন্তর্জাতিক

উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কে গুরুত্ব যুক্তরাষ্ট্রের

ঢাকা , ১২ ফেব্রুয়ারী , (ডেইলি টাইমস ২৪):

উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কে প্রাধান্য দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। শীতকালীন অলিম্পিককে কেন্দ্র করে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার সম্পর্ক উন্নয়নের দিকে মোচড় নেওয়ায় পিয়ংইয়ংয়ের প্রতি ওয়াশিংটন দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে চাইছে। সোমবার মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

পেন্স জানিয়েছেন, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক আরো জোরদার করতে যে সব শর্ত রয়েছে সেগুলোর বিষয়ে ঐক্যমতে পৌঁছেছে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া। প্রথমে দক্ষিণ কোরিয়া ও পরে যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার টেবিলে বসবে।

দক্ষিণ কোরিয়া থেকে ফেরার পথে এয়ারফোর্স টুতে বসে ওয়াশিংটন পোস্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পেন্স বলেন, পারমাণবিক কর্মসূচি বন্ধে পিয়ংইয়ংয়ের ওপর ওয়াশিংটন সর্বোচ্চ চাপপ্রয়োগ অব্যাহত রাখবে। একইসঙ্গে সম্ভাব্য সংলাপের পথও উন্মুক্ত রাখা হবে।

তিনি বলেন, ‘জোটের কাছে বিশ্বাসযোগ্য হিসেবে নিরস্ত্রীকরণের উদ্দেশে অর্থপূর্ণ কোনো কিছু না করা পর্যন্ত তাদের ওপর থেকে চাপ সরবে না। তাই সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের প্রচারণা চলতে থাকবে এবং তা বাড়বে। কিন্তু আপনারা যদি আলোচনা করতে চান, তাহলে আমরাও আলোচনায় বসব।’

সোমবার এর আগে অবশ্য মিশর সফররত মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেছেন, সাম্প্রতিক অগ্রগতি কূটনৈতিক প্রক্রিয়া শুরুর প্রতিনিধিত্ব করে কিনা তা বিচার করার জন্য অনেক কম সময়।

আরো সংবাদ...