ছয় ঘণ্টায় শত ভাষায়গান গেয়ে বিশ্বরেকর্ড

ঢাকা , ০১ মার্চ, (ডেইলি টাইমস ২৪):

সুচেতা সতীশ। বয়স মাত্র বারো। তবে সদ্য কৈশোরে পা দেওয়া কেরালার রাজ্যের এই মেয়ে অসাধ্য সাধন করেছে। গত ২৫ জানুয়ারি দুবাইয়ে ভারতীয় হাইকমিশন আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে সপ্তম শ্রেণির এই ছাত্রী মাত্র ছয় ঘণ্টা পনেরো মিনিটে ১০২টি ভাষায় গান গেয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। সে নাম লিখিয়েছে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে।সুচেতার জন্ম ভারতে হলেও পড়াশোনা, বেড়ে ওঠা দুবাইয়ে। সংগীত চর্চা সেখান থেকেই শুরু। পারিবারিকভাবে সাংস্কৃতিক আবহে বড় হওয়া সুচেতা বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় হিন্দি, মালায়ালাম, তামিল ও ইংরেজি ভাষায় গান গেয়ে ইতিমধ্যেই প্রশংসা অর্জন করেছে। বছরখানেক আগে তার বিশ্বের বিভিন্ন ভাষায় গান গাওয়ার শখ জাগে।

গলফ নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সুচেতা জানায়, জাপানি ভাষায় প্রথম কোনো বিদেশি গান শেখে সে। তার বাবার এক বন্ধু বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। তার কণ্ঠে জাপানি গান শুনে আগ্রহ তৈরি হয়। সেই থেকে শুরু এবং গত এক বছরে ১০২টি ভাষার গান সে আয়ত্ব করেছে।

যে কোনো বিদেশি ভাষার একটি গান শিখতে সুচেতার সময় লাগে ২ ঘণ্টা। তবে গানটি সহজ হলে সে মাত্র ত্রিশ মিনিটে শিখতে পারে। জার্মান, ফরাসি এবং হাঙ্গেরিয়ান ভাষায় গান গাইতে গিয়ে সুচেতার সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়তে হয়। কারণ উচ্চারণের পাশাপাশি এ সমস্ত ভাষায় গানের সুর নিয়ে সমস্যা হয়। মাউরি, আর্মেনিয়ান এবং স্লোভাকিয়ান ভাষায় গান তার কাছে সবচেয়ে সহজ বলে মনে হয়।

শখের বসে বিদেশি ভাষার গান গাওয়া শুরু করে সুচেতা, যা এখন তার নেশায় পরিণত হয়েছে। তার স্বপ্ন, একদিন বিশ্বের সব দেশের ভাষায় গান গাইবে সে।