জাতীয়লিড নিউজ

উন্নয়শীল দেশ হিসেবে জাতিসংঘের স্বীকৃতি পেল বাংলাদেশ

ঢাকা , ১৭ মার্চ , (ডেইলি টাইমস ২৪):

সকল শর্ত পূরণ করে স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হয়ে প্রথমবাবের মতো উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে জাতিসংঘের স্বীকৃতি পেল বাংলাদেশ।

স্থানীয় সময় ১৬ মার্চ, শুক্রবার বিকেলে নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দফতরে প্রতিষ্ঠানটির ‘দি কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিপিডি)’ মতে- এই স্বীকৃতি সংক্রান্ত একটি চিঠি জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেনের কাছে হস্তান্তর করে।

বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন অফিসের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুবর রহমান মিলনায়তনে জাতিসংঘের আনুষ্ঠানিক ওই স্বীকৃতি হস্তান্তর করেন সিপিডি প্রধান কর্মকর্তা রোলান্ড মোলেরাস এ সময় তিনি স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হয়ে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় বাংলাদেশের জনগণকে অভিনন্দন জানান।

এ বিষয়ে মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘এটা আমাদের জন্য ঐতিহাসিক দিন। আমি গর্বিত বোধ করছি যে, বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হওয়ার সকল শর্ত পূরণ করেছে।’

জাতিসংঘে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ আরও বলেন, ‘২০২০ সালের মধ্যে স্বল্পোন্নত দেশসমূহের অর্ধেক এই ক্যাটাগরি থেকে উত্তীর্ণ হবে এটিই ছিল ইস্তাম্বুল ঘোষণার একটি প্রধানতম উদ্দেশ্য যা এজেন্ডা ২০৩০ বাস্তবায়ন অর্থাৎ দীর্ঘস্থায়ী শান্তি ও সমৃদ্ধি বিনির্মাণের পরিপূরকও বটে।’

এ সময় তিনি বাংলাদেশকে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

উন্নয়নশীল দেশের তালিকাভুক্ত হওয়ার জন্য সিপিডি নির্ধারিত শর্তসমূহ। ছবি: সংগৃহীত

উন্নয়নশীল দেশের তালিকাভুক্ত হওয়ার জন্য সিপিডি নির্ধারিত শর্তসমূহ। ছবি: সংগৃহীত

জাতিসংঘের ‘দি কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (সিপিডি)’ কোনো দেশকে স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে তিনটি শর্ত রয়েছে। এরমধ্যে মাথাপিছু আয়, মানবসম্পদ উন্নয়ন এবং অর্থনৈতিক ভঙ্গুরতার মানদণ্ডে উন্নীত হতে হয়। উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার জন্য এই তিনটি শর্তের যে কোনো দুটি শর্তপূরণ করতে হয়। বাংলাদেশ উপরোক্ত তিনটি শর্তের তিনটি শর্তই পূরণ করেছে।

জাতিসংঘ নির্ধারিত ওই শর্তের সূচকগুলোর মধ্যে মাথাপিছু আয় হতে হবে ১২৩০ ডলার, যেখানে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ১৬১০ ডলার। মানবসম্পদ উন্নয়নের সূচক কমপক্ষে ৬৬ হতে হয়, যেখানে বাংলাদেশের সূচক ৭২.৯ এবং অর্থনৈতিক ভঙ্গুরতার সূচক হবে সর্বোচ্চ ৩২, যেখানে বাংলাদেশ অর্জন করেছে ২৪.৮।

জাতিসংঘের স্বীকৃতি নিয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি জানান, উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার জন্য পরপর তিন বছরে জাতিসংঘের তিনটি শর্তের মধ্যে দুটি পূরণ করতে হবে। বাংলাদেশে আগামী ২০২১ সাল পর্যন্ত সূচকগুলো ধারাবাহিকতাভাবে অর্জন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এ সময় সিডিপি’র এক্সপার্ট গ্রুপের চেয়ার প্রফেসর হোসে অ্যান্তোনিও ওকাম্পো, জাতিসংঘের এলডিসি, এলএলডিসি (ভূ-বেষ্টিত উন্নয়নশীল দেশ) ও সিডস (উন্নয়নশীল ক্ষুদ্র দ্বীপ-রাষ্ট্রসমূহ) সংক্রান্ত কার্যালয়ের উচ্চতম প্রতিনিধি আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ফেকিতামইলোয়া কাতোয়া উটইকামানু, জাতিসংঘে বেলজিয়ামের স্থায়ী প্রতিনিধি মার্ক পিস্টিন, তুরস্কের স্থায়ী প্রতিনিধি ফেরিদুন হাদী সিনিরলিওলু, ইউএনডিপির এশিয়া ও প্যাসিফিক অঞ্চলের আঞ্চলিক ব্যুরোর পরিচালক ও জাতিসংঘের সহকারি সেক্রেটারি জেনারেল হাওলিয়াং ঝু এবং ইউএনডিপির মানবিক উন্নয়ন রিপোর্ট অফিসের পরিচালক ড. সেলিম জাহান উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Close