ধর্ম ও জীবন

নেক আমলকারীদের জন্য যত সুসংবাদ

ঢাকা , ১০ এপ্রিল , (ডেইলি টাইমস ২৪):

নেক আমলকারীরা আল্লাহ তাআলার বন্ধু। যারা আল্লাহর বন্ধু তাদের কোনো ভয় নেই বলে পবিত্র কুরআনের অসংখ্য আয়াতে তিনি নিজেই ঘোষণা করেছেন। আল্লাহ বলেন, ‘জেনে রেখ! নিশ্চয়ই আল্লাহর বন্ধুদের কোনো ভয় নেই এবং তারা দুঃখিতও হবে না।’ (সুরা ইউনুস : আয়াত ৩২)

অন্য আয়াতে আল্লাহ ঘোষণা করেন, হে আমার (ইবাদতকারী) বান্দাগণ! আজ তোমাদের কোনো ভয় নেই এবং তোমরা চিন্তিতও হবে না।’ (সুরা যখরূফ : আয়াত ৬৮)

আল্লাহ তাআলা কুরআনে পাকের অনেক জায়গায় নেক আমলকারীদেরকে অভয় দিয়েছেন। সুসংবাদ ঘোষণা করেছেন। তন্মধ্যে কিছু আয়াত তুলে ধরা হলো-

>> ‘আমার পক্ষ থেকে তোমাদের কাছে কোনো নির্দেশ আসলে যারা আমার নির্দেশ অনুসারে চলবে, তাদের কোনো ভয় নেই এবং তারা দুঃখিতও হবে না। (সুরা বাকারা : আয়াত ৩৮)

>> ‘হ্যাঁ, যে নিজেকে আল্লাহর উদ্দেশ্যে সম্পূর্ণরূপে সমর্পন করে এবং নেক কাজ করে, তার জন্য প্রতিপালকের কাছে পুরস্কার রয়েছে। তাদের কোনো ভয় নেই এবং তারা দুঃখিতও হবে না।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ১২৮)

>> ‘যারা আল্লাহর পথে সম্পদ খরচ করে; খরচের কথা বলে বেড়ায় না এবং কষ্টও দেয় না, তাদের জন্য প্রতিপালকের কাছে রয়েছে পুরস্কার। তাদের কোনো ভয় নেই আর তারা দুঃখিতও হবে না।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ২৬২)

>> ‘যারা খরচ করে নিজেদের ধন-সম্পদ রাতে ও দিনে, গোপনে ও প্রকাশ্যে; তাদের জন্য প্রতিপালকের কাছ থেকে রয়েছে প্রতিদান। তাদের কোনো ভয় নেই এবং তারা দুঃখিতও হবে না।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ২৭৪)

>> ‘নিশ্চয় যারা ঈমান আনে, নেক আমল করে, নামাজ প্রতিষ্ঠা করে এবং জাকাত দেয়; তাদের জন্য তাদের প্রতিপালকের কাছে আছে পুরস্কার। তাদের কোনো ভয় নেই এবং তারা দুঃখিতও হবে না।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ২৭৭)

>> ‘আমি রাসুলদেরকে শুধুমাত্র সুসংবাদদাতা ও সতর্ককারী হিসেবে প্রেরণ করিনি। সুতরাং যে ঈমান আনবে এবং নিজেকে সংশোধন করবে, তাদের কোনো ভয় নেই এবং তারা শোকার্ত হবে না।’ (সুরা আনআম : আয়াত ৪৮)

>> ‘হে আদম সন্তান! যদি তোমাদের কাছে তোমাদেরই মধ্য থেকে রাসুলগণ এসে আমার নিদর্শনসমূহ তোমাদের কাছে বর্ণনা করেন; তখন যে ব্যক্তি তাকওয়া অবলম্বন করবে এবং নিজেকে সংশোধন করে নেবে, তাদের কোনো ভয় নেই এবং তাদের কোনো চিন্তাও নেই।’ (সুরা আরাফ : আয়াত ৩৫)

>> ‘যারা ঈমান এনেছে এবং যারা ইয়াহুদি, খ্রিস্টান ও সাবিঈন; তাদের মধ্য থেকে যারা আল্লাহ ও শেষ দিবেসের ওপর ঈমান এনেছে এবং সৎকাজ করেছে; তাদের জন্য প্রতিপালকের কাছে রয়েছে পুরস্কার। তাদের কোনো ভয় নেই এবং তারা চিন্তিতও হবে না।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ৬২)

আরও পড়ুন : যে আমল মানুষকে হাত ধরে জান্নাতে নিয়ে যাবে

পরিশেষে…
আল্লাহ তাআলার এসব ঘোষণার প্রতি অটল ও অবিচল আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপনকারীরাই প্রথমত ঈমানদার ও নেক আমলকারী। অতঃপর আয়াতে ঘোষিত ঈমান, নামাজ, জাকাতসহ আল্লাহর ফরজকৃত ইবাদত ও হুকুমগুলো যথাযথ আদায়কারীরাই হবে এ সব নেক আমলকারীদের অন্তর্ভূক্ত।

আল্লাহ তাআলার এ ঘোষণাগুলোতে মজবতু করেছে কুরআনের এ আয়াতে কারিমা। আল্লাহ বলেন, ‘নিশ্চয় যারা বলে, আমাদের রব হচ্ছেন আল্লাহ; এবং তাতে অটল থাকে; তাদের কোনো ভয় নেই এবং তাদের কোনো চিন্তাও নেই।’ (সুরা আহকাফ : আয়াত ১৩)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ছোট হোক বড় হোক তার সব ফরজিয়ত ইবাদতগুলো আদায়ের পাশাপাশি প্রিয়নবির শেখানো আমলগুলো নিজেদের জীবনে বাস্তবায়ন করার তাওফিক দান করুন। পরকালের চিন্তা ও পেরেশানী থেকে হেফাজত করুন। কুরআনের যাবতীয় নির্দেশগুলো মেনে চলার মাধ্যমে পরকালের সফলতা লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

আরো সংবাদ...