লাইফস্টাইল

বৈশাখী আয়োজনে ৪ রকমের ঠান্ডা খাবার

ঢাকা , ১১ এপ্রিল , (ডেইলি টাইমস ২৪):

প্রতিবছরই যেন পাল্লা দিয়ে বাড়ছে গরমের সমস্যা। প্রচণ্ড দাবদাহে পহেলা বৈশাখের দিনে অসুস্থ হয়ে পড়েন অনেকেই। অন্যদিকে ভারী তেলমশলা যুক্ত খাবার খেয়েও দেখা দেয় নানান রকমের অসুখ-বিসুখ। তাই বলে উৎসবের দিনে বিশেষ খাবারের আয়োজন হবে না? নিশ্চয়ই হবে। যে কোনো উৎসবের আয়োজনেই আবহাওয়ার কথাটি বিবেচনা করে মেন্যু তৈরি করা উচিত। তা না হলে অহেতুক অসুস্থতা হানা দেবেই।

নববর্ষের আয়োজনে যোগ করুন ভিন্ন স্বাদের শরবত, ঠান্ডা সালাদ, ঐতিহ্যবাহী কুলফিসহ নানান রকমের ভিন্ন স্বাদের খাবার। এতে মেহমান যেমন খেয়ে স্বস্তি পাবেন, আপনিও তৈরি করতে পারবেন খুব সহজে। আজকের ফিচারে থাকছে নববর্ষের ৪ টি ভিন্নধর্মী রেসিপি। লেবু-পুদিনার শরবত, কাঁচা আমের পানা, ফল ও সবজির সালাদ, মিক্সড ফ্রুট কুলফি।

শরীর জুড়াবে লেবু-পুদিনার শরবতে

ছবিটি সংগৃহীত।
শরীরে পানির অভাব পূরণ করার পাশাপাশি ডায়রিয়ার মতো সমস্যা দূর করতে সাহায্য করবে এই শরবতটি। এতে লাগবে খুব সামান্য কটি উপাদান- লেবুর রস, পুদিনা পাতা, জিরা গুঁড়ো, লবণ ও পানি। যারা মিষ্টি ভালোবাসেন, তারা যোগ করে নিতে পারেন স্বাদ অনুযায়ী চিনি।

গরমে স্বস্তি দেবে কাঁচা আমের পানা

ছবিটি সংগৃহীত।
হিট স্ট্রোক প্রতিহত করতে এই শরবত খুব কার্যকরী। তৈরি করা খুব সহজ, ফ্রিজে রেখেও পরিবেশন করা যাবে। নতুন নতুন কাঁচা আমের অন্যবদ্য স্বাদ একে করে তোলে মুখরোচক। যে ধরনের আমের পানা খেয়ে অভ্যস্ত আমরা, এই রেসিপিটি সেগুলোর চাইতে একেবারেই ভিন্ন। উপকরণ লাগবে- আম, এলাচ গুঁড়ো, জাফরান, চিনি ও পানি। স্বাদে ভিন্নতা চাইলে যোগ করতে পারেন লবণ।

ফল-সবজির সালাদে দারুণ ডায়েট

ছবিটি সংগৃহীত।
লো ক্যালোরির এই সালাদ রেসিপিটি তাদের জন্য ভালো যারা ওজন কমানোর দিকে মনযোগী কিংবা ভারী খাবার এড়িয়ে যেতে চাইছেন। এতে অনেকটা ফাইবার, ভিটামিন এ এবং সি থাকায় আপনার শরীরের জন্যও ভালো। হজম হবে খুব তাড়াতাড়ি, ক্যালোরি নিয়ন্ত্রণ করাও হবে বেশ। সালাদের ড্রেসিং এ কোনো মেয়োনিজ ব্যবহার করা হয়নি, বরং দুধ ও লো ফ্যাট দই ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও আছে হরেক রকমের ফল ও সবজি, মুখরোচক সস।

ঠান্ডা ঠান্ডা মিষ্টিমুখ মিক্সড ফ্রুট কুলফিতে 

ছবিটি সংগৃহীত।
বৈশাখী আয়োজনে ডেজার্ট কী রাখবেন ভেবেছেন কিছু। না ভেবে থাকলে ঝটপট প্রস্তুতি নিয়ে রাখুন এই কুলফির। এতে আছে হরেক রকমের ফলের রস। ২/৩ দিন আগে তৈরি করেই ফ্রিজে রেখে দিতে পারবেন, ফলে আপনার সময় ও পরিশ্রম দুটোই বাঁচবে খুব।

Related Articles

Close