মুক্তমত

আমরা সেবিকা

ঢাকা , ১২ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):  

আজ ১২ই মে। বিশ্ব সেবক/সেবিকা দিবস। সেবা এক পরম গুণ। এই গুণ কে আরো বেশি কার্যকর করার জন্য প্রয়োজন, সততা পরিশ্রম আর ধৈর্য্য। অসুস্থ মানুষ কে সুস্থ করে তোলার জন্য দরকার অঁটুট অধ্যবসায়, মনোবল আর মানুষ কে ভালোবাসার মতো মন মানসিকতা।চিকিৎসকেরা চিকিৎসাপত্র লেখে দেন। কিন্তু সেই ওষুধ গুলো সঠিক সময়ে খাওয়ানোর দায়িত্ব একজন সেবক বা সেবিকার ।

 ‘একজন সেবক বা সেবিকার কাজে সততা, মেধা থাকলে সেই সেবক/সেবিকা সব হসপিটালে কাজ করতে পারবে। আরো খেয়াল রাখতে হবে, একেক বিভাগের কাজের ধরন একেক রকম।’ 

আমাদের দেশে এখন অনেক Nurse Institutions তৈরি হয়েছে । আগের তুলনায় অনেক সেবক সেবিকা তৈরি হচ্ছে। যা নিঃসন্দেহে প্রশংসার যোগ্য। আমাদের আরো অনেক সেবক সেবিকা দরকার।

একজন সেবক বা সেবিকা তখনই হয়ে ওঠে মহান, যখন তার সেবার সাথে যুক্ত হয় সততা আর ভালোবাসা। রোগীকে ঘৃণা করলে কখনওই সেই মানুষটা ভালো সেবক হতে পারবে না। রোগীকে আপন মনে করে সেবা করতে হবে। সেই সাথে লেখাপড়াও করতে হবে।

অপারেশন এর পরে রোগীর পরিচর্যা, ওষুধ খুবই সচেতনতার সাথে খেয়াল করতে হয়। নিয়মিত ওষুধের নাম, ডোজ, ইনসুলিন দেওয়ার নিয়ম থেকে শুরু করে সবকিছুতে আধুনিক হতে হবে।

একজন সেবক বা সেবিকার কাজে সততা, মেধা থাকলে সেই সেবক/সেবিকা সব হসপিটালে কাজ করতে পারবে। আরো খেয়াল রাখতে হবে, একেক বিভাগের কাজের ধরন একেক রকম।

যেমন- মেডিসিন বিভাগের কাজ আর গাইনি বিভাগের কাজ এক নয়। বিভাগ, কাজের ধরন, রোগীর ওষুধ ও মন মানসিকতা বুঝে কাজ করলে, একজন সেবক সফল হবে।

আজকাল অনেক হসপিটালে চিকিৎসক আর সেবকদের গন্ডগোল হয়। পরিণামে ভোগান্তি হয় রোগীদের। যা কখনই কাম্য নয়। সারা দেশে বৃদ্ধি হোক আরো অনেক অনেক ভালো মানের সেবক। বিশ্ব সেবক সেবিকা দিবস উপলক্ষে, পৃথিবীর সকল সেবক সেবিকা কে হাজারো সালাম।

লেখক : চিকিৎসক।

Related Articles

Close