প্রবাসের খবর

বাংলাদেশ উন্নয়নের অনুকরণীয় উদাহরণ

ঢাকা , ১৪ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):  

অর্থনীতিসহ বিভিন্ন সেক্টরে বাংলাদেশের অভাবনীয় অগ্রগতির কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশকে উন্নয়নের অনুকরণীয় উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন বিদেশি বিশেষজ্ঞরা।

বাংলাদেশ কিভাবে এ উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ধরে রাখতে পারে এবং কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি অর্জন ত্বরান্বিত করতে পারে, সে সম্পর্কেও দিকনির্দেশনা তুলে ধরেন তারা।

যুক্তরাষ্ট্রের বস্টনে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত ‘বাংলাদেশ রাইজিং’ শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনারের মূল প্রতিপাদ্য ছিল- ‘হাউ বাংলাদেশ ক্যান মেইনটেইন ইটস মোমেন্টাম অব ডেভেলেপমেন্ট অ্যান্ড পটেনশিয়ালি একসেলারেট দ্য গ্রোথ’। এতে দেশি-বিদেশি বক্তারা বাংলাদেশ নিয়ে তাদের গবেষণা তুলে ধরেন।

শনিবার বাংলাদেশের উন্নয়ন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বৃহৎ এই একাডেমিক কনফারেন্স যৌথভাবে আয়োজন করে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কেনেডি স্কুলের সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট এবং বস্টনভিত্তিক গবেষণা সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (আইএসডিআই)।

সকাল ৯টায় শুরু হওয়া সেমিনারে প্রথমেই অতিথিদের স্বাগত জানান ইন্টারন্যাশনাল সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের পরিচালক ইকবাল ইউসুফ ও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কেনেডি স্কুলের বেলফার সেন্টার এর সিনিয়র ফেলো ইকবাল কাদির।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন হার্ভার্ডের টাফ্টস ফ্লেচার স্কুলের ইনস্টিটিউট ফর বিজনেজ ইন দ্য গ্লোবাল কনটেক্সটের ফেলো নিকোলাস সুল্লিভান সেমিনারের প্রাসঙ্গিকতা তুলে ধরে বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার একটি ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করেন তিনি।

সেমিনারের উদ্বোধনী পর্বে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন হার্ভার্ড কেনেডি স্কুলের সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টের সিনিয়র রিসার্স ফেলো ফ্রাঙ্ক নেফ্কি।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, বাংলাদেশে এসডিজি বাস্তবায়নের মুখ্য সমন্বয়ক ও প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের চ্যার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স তারেক মো. আরিফুল ইসলাম, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী, সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আজিজ খান, এটুআই এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনির চৌধুরী, বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডট কমের সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদী, বাংলাদেশ ইকোনমিক অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি জামালউদ্দিন আহমেদ, আইএফসির প্রতিনিধি মিরা নারায়ণ স্বামী, মাইক্রোসফট্ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবীর, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের আনিকা চৌধুরী, গ্রিন ডেল্টা ইনস্যুরেন্স কোম্পানির ফারজানা চৌধুরী, অ্যালায়েন্স ফর অ্যাফোর্ডেবল ইন্টারনেটের নির্বাহী পরিচালক সোনিয়া এন জর্জ, জেনারেল ইলেকট্রিক কোম্পানির সিইও দিপেস নন্দ, বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগকারী চার্লস ল্যাসি, সাউথ কোরিয়ার এসকে গ্যাস এর সিনিয়র ম্যানেজার ইয়ো জিন কিম প্রমুখ।

এ ছাড়া জাতিসংঘ এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক উন্নয়ন অংশীদার ও সংস্থার প্রতিনিধি, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, হার্ভার্ডসহ বিভিন্ন বিশ্বিবিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত নীতিনির্ধারক, কূটনীতিক, সরকারি কর্মকর্তা, থিংক ট্যাংক, রাজনৈতিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, ব্যবসায়ী, বেসরকারি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা সেমিনারে অংশ নেন।

বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনারটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও সেক্টরের খ্যাতিমান মানুষের মিলনমেলায় পরিণত হয়। আলোচনা, বিতর্ক, মত ও অভিজ্ঞতা বিনিময় ইত্যাদির মাধ্যমে ওঠে আসে বাংলাদেশে উন্নয়নকে অর্থবহ ও টেকসই করার বিভিন্ন কলাকৌশলের কথা।

সেমিনারে আরও অংশ নেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনের ইকোনমিক মিনিস্টার ইকবাল আব্দুল্লাহ হারুন, কাউন্সিলর সঞ্চিতা হক, ফার্স্ট সেক্রেটারি (প্রেস) নূর এলাহী মিনা, ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের ইকোনমিক মিনিস্টার মো. শাহাবুদ্দিন পাটোয়ারী, হাওয়াইয়ে হনুলুলুর অনারারি কনসাল জেনারেল এম জান রুমী প্রমুখ।

সেমিনারে সহযোগিতা প্রদান করে বাংলাদেশের সামিট গ্রুপ, ম্যাক্স গ্রুপ, মেঘনা গ্রুপ, বসুন্ধরা গ্রুপ, জেনারেল ইলেকট্রিক কোম্পানি, এনার্জি প্যাক বাংলাদেশ ও আব্দুল মোনেম ইকোনমিক জোন।

Related Articles

Close