বিনোদন

ভালোর থেকেও ভালো করতে হবে: সিয়াম

ঢাকা , ২২ জুন , (ডেইলি টাইমস ২৪):

পোড়ামন ২’ নিয়ে আপনার দীর্ঘ ভ্রমণটা কেমন হলো?
একটা অদ্ভুত জার্নি। একটা ধাপ থেকে শুরু হয়ে আরেকটা ধাপে এসে শেষ হলো। এটা আমার জন্য একটা বড় ব্যাপার। আপস অ্যান্ড ডাউন ছিল, ভয় ছিল, টেনশন ছিল। সঙ্গে ভালো করার একটা ইচ্ছাও ছিল। ছবি শুরু করার পর অনেক কথা শুনেছি। আসলে কথার জবাব অনেক সময় কথা দিয়ে দেওয়া যায়, আবার কাজ দিয়ে দেওয়া যায়। আমরা সবাই মিলে চেষ্টা করেছি কাজ দিয়ে উত্তর দিতে।

ঠিকঠাক উত্তর দিতে পেরেছেন?
দেখুন, পোড়ামন ২ ছবিটি সমালোচকদের জন্য নির্মাণ করা হয়নি। এটা দর্শকদের জন্য। আমাদের দেশে দুই ধরনের ছবি নির্মাণের নির্মাতা ও অভিনয়শিল্পী আছেন। কিন্তু আমরা দর্শকদের জন্য একটা মানসম্মত গল্প নিয়ে ছবি নির্মাণ করার চেষ্টা করেছি। গল্পটা যেন মাথার ওপর দিয়ে না যায়, সেই চেষ্টা ছিল আমাদের সবার। ওই ভাবনা থেকে আমরা অনেকটাই সফল।

ছবি মুক্তির পর বেশ কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহে গিয়েছেন। কেমন সাড়া পেলেন?
অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছি। আমার প্রথম ছবি মুক্তি পেল ঈদের মতো একটা বড় উৎসবে। এটা আমার জন্যও অনেক বড় পাওয়া। তা ছাড়া আমরা ভাগ্যবান, একটা ভালো টিম পেয়েছি। এই টিমে আমরা সবাই সবাইকে সাপোর্ট করেছি। সবাই সবাইকে সাহস দিয়েছি। এই সময়ে চলচ্চিত্রের জন্য এমন একটা টিম খুব জরুরি। আমার সব সময়ই চাওয়া, এই টিমটা যেন ভবিষ্যতে আরও অনেক কাজ করতে পারে।

এই দলটাই তো ‘দহন’ করছে। কেমন মনে হচ্ছে?
দহন করতে এসে দায়িত্ববোধ অনেক বেড়ে গেছে। কারণ, এত দিন সবাই মিলে ভালো করার চেষ্টা করতাম। কিন্তু পোড়ামন ২ মুক্তির পর মনে হচ্ছে শুধু ভালো করলে হবে না, ভালোর থেকেও ভালো করতে হবে।

টেলিভিশন থেকে চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে এলে একধরনের ঝুঁকি ও ভয় থাকে। আপনার কি এ রকম কোনো ভয় ছিল?
আমার আসলে এ রকম কোনো ভয় ছিল না। আমার বিশ্বাস ছিল, যদি গল্পটা ঠিকঠাক সবাই বুঝতে পারে এবং নিজেদের এর সঙ্গে যুক্ত করতে পারে, তাহলে আর কোনো ভয় নেই। কারণ, পোড়ামন ২-এর মূল হিরো আসলে গল্প। আমি মনে করি, যদি গল্পটা ঠিকঠাকমতো উপস্থাপন না করা হয়, তাহলে কোনো চরিত্রই ঠিকঠাক উপস্থাপন করা যাবে না।

তাহলে সিয়াম কি অভিনেতা, নাকি হিরো?
আমি তো শুরু থেকেই বলে আসছি, আমি অভিনেতা হওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছি। হিরো হওয়া অনেক বড় ব্যাপার এবং বড় দায়িত্ব।

‘পোড়ামন ২’ মুক্তির পর কোনো দৃশ্য দেখে কি মনে হয়েছে যে আবার করলে ভালো হতো?
আমার তো পুরো সিনেমা দেখেই মনে হয়েছে, ইশ্! আবার যদি করতে পারতাম, তাহলে আরও ভালো করতে পারতাম। আসলে সত্যি কথা হলো, আমি আমার কাজ নিয়ে কখনোই শতভাগ খুশি থাকি না। আমার বরাবরই মনে হয়, আরও ভালো করতে পারতাম।

সহশিল্পী হিসেবে পূজা ১০-এ কত পাবেন?
আমার ক্ষমতা থাকলে ১০-এ ১১ দিতাম। কিন্তু আমি ৯ দেব। যাতে ও দহন-এ ওই ১ নম্বরের জন্য আরও ভালো করে।

সুযোগ পেলে সহশিল্পী হিসেবে কাকে চান?
সুযোগ ও চিত্রনাট্য পেলে আমি জয়া আহসানের সঙ্গে কাজ করতে চাই।

আরো সংবাদ...