বন্যাকবলিত ৯ জেলায় সরকারের নজর আছে

ঢাকা , ১০ জুলাই , (ডেইলি টাইমস ২৪):

বন্যার পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারের পূর্ণ পূর্ব প্রস্তুতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনামন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। তিনি বলেছেন, ‘বন্যার বিষয়ে সরকারের পূর্ণ পূর্ব প্রস্তুতি রয়েছে। দেশের বন্যাকবলিত ৯ জেলায় পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এবং সেদিকে সরকারের সুনজর রয়েছে।’

মঙ্গলবার (১০ জুলাই) সচিবালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সংক্রান্ত এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব তথ্য জানান তিনি।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামালের সভাপতিত্বে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব, অতিরিক্ত সচিব ও বিভিন্ন অধিদফতরের প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে কথা বলেছেন।

সভা শেষে সচিব জানান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার আদেশাবলী আইন সময়োপযোগী ও আধুনিক করতে সংশোধন করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান- ন্যাশনাল ইমারজেন্সি অ্যান্ড অপারেশন সেন্টার স্থাপন, দুর্যোগে প্রতিবন্ধী নারী ও শিশুর অধিকতর নিরাপত্তা বিধান ও বিভিন্ন কমিটিতে নতুন সদস্য অন্তর্ভুক্তকরণসহ কতগুলো সংশোধনী নিয়ে এ আইন সংশোধন করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন অংশীজনের মতামতের আলোকে আইনের খসড়া চুড়ান্ত করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক জাতীয় কাউন্সিলের অনুমোদনের জন্য আগামী কাউন্সিল সভায় খসড়াটি উপস্থাপন করা হবে।

সভায় জানানো হয়- বজ্রপাত, পাহাড়ধস ও রাসায়নিক দুর্যোগের মতো বিষয়গুলো স্থায়ী আদেশাবলীতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। দুর্যোগে প্রতিবন্ধী মানুষ এবং নারী ও শিশুদের অধিকতর গুরুত্ব প্রদান করে আদেশাবলীতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া তৃণমূল পর্যায়ে ওয়ার্ড কমিটি গঠন, স্বেচ্ছাসেবকদের ভূমিকা, আপদকালীন মজুদ সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও ব্যবস্থাপনার বিষয়টি দুর্যোগ সংক্রান্ত এ স্থায়ী আদেশাবলীতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

সভায় উপস্থিত অংশীজনের আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে আগামী ১৮ জুলাইয়ের মধ্যে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও অধিদফতরকে তাদের সুপারিশ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।