মিরসরাই ট্র্যাজেডি দিবস আজ

0
12

ঢাকা , ১১ জুলাই , (ডেইলি টাইমস ২৪):

বছর ঘুরে আবার এলো শোকাবহ মিরসরাই ট্র্যাজেডি দিবস। ২০১১ সালে ১১ জুলাই এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছিল স্কুল শিক্ষার্থীসহ ৪৫ জন। প্রতি বছরের মতো এবারো ১১ জুলাই বুধবার পালিত হচ্ছে মিরসরাই ট্র্যাজেডির ৭ম বার্ষিকী। এই দিবসকে ঘিরে আয়োজন করা হয়েছে নানা অনুষ্ঠানমালার।
তবে গতানুগতিক এসব আয়োজনের বাইরে শোকার্ত পরিবারগুলোর একটিই দাবি স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। সন্তানহারা ৪৫টি পরিবারের সদস্যদের চাকরিসহ নানা ক্ষেত্রে সুযোগ করে দেয়া, যাতে বিপর্যয় কাটিয়ে কিছুটা ঘুরে দাঁড়াতে পারেন তারা। এ বিষয়ে মায়ানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির নিজামী বলেন, ইতিমধ্যে নিহত পরিবারের ৩ জনকে চাকরির ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে। আমরা এ বিষয়ে আন্তরিক।
প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ১১ জুলাই  মিরসরাই স্টেডিয়াম বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল ফাইনাল খেলা শেষে একটি মিনি ট্রাকে করে সমর্থকরা আবুতোরাব এলাকায় যাচ্ছিল। বড়তাকিয়া-আবুতোরাব সড়কের সৈদালী এলাকায় ৬০-৭০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে ডোবায় উল্টে যায় মিনি ট্রাকটি। এতে মারা যায় ৪৫ স্কুল ছাত্র।
মিরসরাই ট্র্যাজেডির ৭ম বার্ষিকীতেও এই ঘটনার মূল আলোচনায় ঘাতক মফিজই। ৪৫ প্রাণহানীর ঘটনায় তার মাত্র ৫ বছরের সাজা কোনভাবেই মানতে পারেন না স্বজনরা। মফিজ আসলে ট্রাকচালকের সহকারী ছিলেন। দুর্ঘটনার সময় তিনি মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন। ঘটনার কয়েকটি দিন পর পুলিশের হাতে ধরা পড়ে মফিজ। এই ঘটনায় দুটি ধারার মামলায় মোট ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড হয়েছিল মফিজের। ২০১৫ সালের  জুলাই মাসের শেষের দিকে মুক্তি পায় সে। মফিজের বাড়িও আবুতোরাব এলাকায়।