ক্যাম্পাস

বিশ্ববিদ্যালয় কনসেপ্ট পরিপন্থী সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি

ঢাকা , ১১ জুলাই , (ডেইলি টাইমস ২৪):

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কথিত বহিরাগত প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারির সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ। একই সঙ্গে এ সিদ্ধান্তকে বিশ্ববিদ্যালয় কনসেপ্টের সম্পূর্ণ পরিপন্থী এবং অবিলম্বে এ ধরনের অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছে দলটি।

মঙ্গলবার (১০ জুলাই) দলের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় হলো বিশ্বের জ্ঞানের আলো, সেখানে সকল মতো-পথের সংঘর্ষ, তর্ক-বিতর্ক, আদান-প্রদান হয়। এর মধ্য দিয়ে নতুন চিন্তা ও জ্ঞানের বিস্তার ঘটে। ফলে শুধু ছাত্র-শিক্ষকরাই নয়, সমাজের সর্বস্তরের মানুষের বিচরণের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থাকবে উন্মুক্ত। বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘুরাফেরা করলেও মানুষের জ্ঞান বাড়ে, গণতান্ত্রিক চিন্তা প্রসারিত হয়।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং দেশের ইতিহাস এক সূত্রে গাঁথা। বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনের সূচনা ও বিকশিত হয়েছে এবং হচ্ছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অতীতে দেশ বরেণ্য সকল বক্তব্য রেখেছেন এবং এখনও শেখ হাসিনাসহ অনেকেই বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন, স্বৈরাচারী এরশাদও গণআন্দোলন দমন করতে ক্যাম্পাস পুলিশ, নিরাপত্তা চেকপোস্ট বসানোর পাঁয়তারা করেছিল। কিন্তু ছাত্রদের প্রতিরোধে তা সফল হয়নি। বর্তমান প্রশাসনের ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত ও অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধেও ছাত্র-জনতার ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি। অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্ত বাতিলের জোর দাবি জানান তিনি।

অপরদিকে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো এক বিবৃতিতে ঢাবি কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্তকে চরম দুঃখজনক বলে অবিহিত করেছেন।

তারা বলেন, আন্দোলন-সংগ্রামের বিভিন্ন পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের কোনো সময়েই এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। এটা বিশ্ববিদ্যালয় ধারণার চরম বিরোধী। একই সঙ্গে কোটা আন্দোলনের সঙ্গে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার আভাসের কথা বলা হচ্ছে তাও কোনো ধরনের তথ্যের ওপর প্রতিষ্ঠিত নয়।

আরো সংবাদ...