আন্তর্জাতিক

সুচির সহযোগীর সমালোচনা করায় মিয়ানমারে তিন সাংবাদিক গ্রেপ্তার

ঢাকা , ১১ অক্টোবর, (ডেইলি টাইমস ২৪):

মিয়ানমারে ইয়াঙ্গুন রাজ্য সরকারের অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনার সমালোচনা করায় একই পত্রিকার তিন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ইয়াঙ্গুন রাজ্যের অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনার দেখভাল করে থাকেন দেশটির বেসামরিক অংশের নেত্রী অং সান সুচির বিশ্বস্ত সহযোগী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।
গ্রেপ্তারকৃত সাংবাদিকরা হচ্ছেন ইলেভেন মিডিয়ার নির্বাহী সম্পাদক কিয়াও জ লিন ও নায়ি মিন এবং পত্রিকাটির চিফ রিপোর্টার ফিয়ো ওয়াই উইন। গতকাল বুধবার সকালে তাদের হাতকড়া পড়িয়ে ইয়াঙ্গুনের একটি আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ নিয়ে শুনানি হ ইয় ও পরবর্তীতে তাদেরকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।
এদিকে, গ্রেপ্তারকৃতদের পক্ষের আইনজীবী কিয়ি মিয়িন্ত বার্তা সংস্থা এএফপি’কে বলেন, সোমবার ইলেভেন মিডিয়ায় ইয়াঙ্গুন শহরের বাস নেটওয়ার্কের একটি তহবিল নিয়ে সোমবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তহবিলটি পরিচালনার দায়িত্বে আছেন ইয়াঙ্গুনের মুখ্যমন্ত্রী ও সুচির বিশ্বস্ত সহযোগী ফিয়ো মিন থেইন।
মিয়িন্ত বলেন, তাদের তিন জনের বিরুদ্ধে ৫০৫(বি) ধারার অধীনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এরপর আজ সকালে তাদের ইনসেইন কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
আদালতে যদি এমনটা প্রমাণিত হয় যে, এরা তিন জন জনমনে ভীতি বা বিপদাশঙ্কা সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে ওই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে  বা ভীতি সৃষ্টি করে থাকে তাহলে তাদের সর্বোচ্চ দুই বছর কারাদণ্ড হতে পারে। আগামী ১৭ অক্টোবর পরবর্তী শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।
উল্লেখ্য, এর আগেও সরকারের তোপের মুখে পড়েছে ইলেভেন মিডিয়া গ্রুপ।  ২০১৬ সালে পত্রিকাটির এক নিবন্ধে লেখা হয় যে, এক সরকারি কর্মকর্তা এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ১ লাখ ডলারের বেশি মূল্যের ঘড়ি উপহার হিসেবে নিয়েছেন। পরবর্তীতে ওই ব্যবসায়ী বেশ কিছু উচ্চ পর্যায়ের চুক্তির দায়িত্ব পেয়েছিল। এই নিবন্ধ প্রকাশের পর পত্রিকাটির তৎকালীন সম্পাদকদের গ্রেপ্তার করা হয়। -আল জাজিরা

আরো সংবাদ...