রাজনীতি

সোমবারের মধ্যে জানা যাবে জামায়াতের ২৫ প্রার্থী নির্বাচনি ভবিষ্যৎ

ঢাকা , ২০ ডিসেম্বর , (ডেইলি টাইমস২৪):

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ২৫ প্রার্থী নির্বাচন করতে পারবেন কি না, তা ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে জানা যাবে।

২০ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচন কশিমনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এই তথ্য জানান নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

ইসি সচিব বলেন, ‘কমিশন মহামান্য উচ্চ আদালতের চিঠি আজ (বৃহস্পতিবার) পেয়েছি। এ বিষয়ে আইন শাখাকে পর্যাপ্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে কমিশনকে অবহিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগামী দুই দিনের মধ্যে কমিশন এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবে।’

দুই দিনের ব্যাখ্যা দিয়ে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘আমাদেরকে বলা হয়েছে, তিন কার্যদিবসের মধ্যে করা। আমরা যেহেতু আজকে পেয়েছি, স্বাভাবিকভাবে আমাদের হাতে আরও দুইটি কার্যদিবস (রবি ও সোমবার) সময় আছে। এর মধ্যে কমিশন নিশ্চয়ই একটা সিদ্ধান্ত দেবে।’

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে নিবন্ধন হারানোর বাংলাদেশ জামায়েতে ইসলামীর ২৫ নেতা ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেন। তাদের ভোটগ্রহণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ১৮ ডিসেম্বর হাইকোর্টে রিট করা হয়। নির্বাচন কমিশনকে তিন দিনের মধ্যে বিষয়টি নিষ্পত্তির নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট।

এর আগে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছিলেন, ‘নিবন্ধন না থাকলেও কোনো রাজনৈতিক দল নির্বাচন করতে পারবে। এ ক্ষেত্রে নিবন্ধন না থাকা দলের প্রার্থীরা নিবন্ধিন অন্য রাজনৈতিক দলের প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।’

দেশের বিভিন্ন জায়গায় সহিংসতার বিষয়ে ইসি সচিব আরও বলেন, ‘নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতির বিষয়ে সব জেলার রিটার্নিং কর্মকর্তাকে কমিশনে প্রতিবেদন পাঠাতে বলা হয়েছে। নির্বাচন সামনে রেখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সব বাহিনীর সদস্যরা মাঠে নামলে পরিস্থিতির আরও উন্নতি হবে।’

হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নির্বাচন কমিশনের অধীনে ভোটের মাঠে থাকবে গ্রাম পুলিশ। ৬৪টি জেলায় ৪১ হাজার গ্রাম পুলিশ আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় অনান্য বাহিনীর সঙ্গে চার দিন কাজ করবে। এ জন্য মহলাদাররা (চৌকিদার) ৫০০ টাকা ও দফাদাররা ৬০০ টাকা করে ভাতা পাবেন। তাদের জন্য বাজেট ধরা হয়েছে ৮ কোটি ২১লাখ ৮৪ হাজার টাকা। গ্রাম পুলিশ জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছ থেকে এই বরাদ্দ বুঝে নেবেন।

তবে সেনাবাহিনীর জন্য এখনো বরাদ্দ নিশ্চিত করতে পারেনি কমিশন বলেও জানান ইসি সচিব।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button