আমি অ্যারেস্ট হওয়ার জন্য বসে আছি: রনি

0
38

ঢাকা , ডিসেম্বর , (ডেইলি টাইমস২৪):

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হওয়ার পর একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন পটুয়াখালী-৩ (গলাচিপা-দশমিনা) আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী গোলাম মাওলা রনি। তিনি ভিডিও বার্তায় জানান, শুধু মাত্র তাকে হয়রানি করার জন্য এই মামলা করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর নিজের ফেসবুকে দেওয়া ভিডিও বার্তায় রনি বলেন, ‘প্রিয় গলাচিপা ও দশমিনাবাসী আপনারা সবাই অবগত আছেন আমার বিরুদ্ধে গলাচিপা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই মামলাটি বেআইনি, এই মামলা উচ্চ আদালতে টিকবে না, এবং এই মামলায় আপনাদের এবং আমাদের কিছুই হবে না। শুধু মাত্র হয়রানি ছাড়া আর কিছুই না। আমি ব্যক্তিগতভাবে এই হয়রানিকে একদম পাত্তা দিচ্ছি না। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের নেতাকর্মীরাও এ মামলাকে পাত্তা দিচ্ছে না। আমাদেরকে ভয় দেখানোর জন্য তাদের যে অপচেষ্টা আমরা তা ঘৃণার সঙ্গে প্রত্যাখ্যান করলাম। তারা যদি আমাকে অ্যারেস্ট করতে চায় করবে, আমি অ্যারেস্ট হওয়ার জন্য বসে আছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাকে যাই করুক না কেন, অ্যারেস্ট করুক নির্যাতন করুক, এটা আমার ব্যাপার। আমি নূন্যতম ভয় পাচ্ছি না। নির্বাচনের মাঠ থেকে কোনো অবস্থাতেই আপনাদের ছেড়ে যাব না। আপনারা ভয় পাবেন না। ইনশাআল্লাহ নির্বাচন হবে।’

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এক টেলি কথোপকথনের সূত্র ধরে গোলাম মাওলা রনির বিরুদ্ধে মামলা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে গলাচিপা থানায় আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক মেহেদী মাসুদ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ১৫ ডিসেম্বর গলাচিপা টিঅ্যান্ডটি সড়কে গোলাম মাওলা রনির স্ত্রীসহ তার পরিবারের সদস্যরা আত্মঘাতী ঘটনা ঘটিয়ে আইনশৃঙ্খলার অবনতি করে নিরাপত্তা বিঘ্নিত করে। মোবাইলে তার কথোপকথন ফেসবুকে ভাইরাল হলে জনমনে ভীতির সৃষ্টি হয়, যা আসন্ন নির্বাচনে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

এর আগে একই দিন গলাচিপা সদরে গোলাম মাওলা রনির স্ত্রী কামরুন্নাহার রুনুর গাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। ওই হামলার জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করেন আওয়ামী লীগের এই সাবেক এমপি।