আন্তর্জাতিক

পর পর ৬টা মিসড কল, তার পর হুট করেই ব্যাঙ্ক থেকে উধাও ১ কোটি ৮৬ লক্ষ টাকা

ঢাকা , ০৩ জানুয়ারি , (ডেইলি টাইমস২৪):

প্রথমে ফোনে পর পর ছটা মিসড কল। আর তার পরে হঠাৎই নিজের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে ১ কোটি ৮৬ লক্ষ টাকা খোয়ালেন মুম্বইয়ের এক ব্যবসায়ী। মুম্বই পুলিশের সাইবার দমন শাখায় মামলাও রুজু করেছেন ওই বস্ত্রব্যবসায়ী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব্যবসায়ী সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‘২৭-২৮ ডিসেম্বরের মধ্যে আমার ফোনে ৬টি মিসড কল আসে।’’ সেই সময়েই এই জালিয়াতি হয় বলে অভিযোগ ওই ব্যবসায়ীর। সাইবার বিশেষজ্ঞরা এই ব্যাঙ্ক জালিয়াতির ঘটনাটিকে ‘সিম সোয়্যাপ’ বলে ব্যাখ্যা করেছেন। ওটিপি ব্যবহার করার জন্য দ্বিতীয় একটি সিম কার্ড ব্যবহার করে এই ধরনের জালিয়াতি করেন অপরাধীরা।

মুম্বইয়ের ওই ব্যবসায়ী বলছেন, ‘‘ছটা মিসড কল পাওয়ার সময়েই আমার মনে সন্দেহ জাগে।’’ যে মুহূর্তে তিনি বুঝতে পারলেন  যে, তাঁর ফোনটি আর কাজ করছে না, তখন তিনি সার্ভিস প্রোভাইডারকে ফোন করেন। আর তখনই সার্ভিস প্রোভাইডারের তরফে জানানো হয় যে, আপনার নম্বর থেকেই অনুরোধ এসেছে সিম কার্ডটি ব্লক করার। ওই ব্যবসায়ী তখনই অবাক হয়ে যান। তিনি বলেন, ‘‘আমাকে জানানো হল যে, ২৭ ডিসেম্বর রাত ১১টা ১৫ নাগাদ সিম কার্ড ব্লক করার অনুরোধ আমার ফোন থেকে গিয়েছে। আমি এই ধরনের অনুরোধ পাঠাইনি বলে অবাক হয়ে যাই শুনে। তার পরে ২৯ ডিসেম্বর আমাকে একটা নতুন সিম দেওয়া হয়।’’

ওই ব্যবসায়ীর কথা অনুযায়ী, তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে ২৮টি ট্রানজাকশন হয়েছে। কিন্তু তিনি তা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি। কারণ, তাঁর ফোনের সিম কার্ডটিই ব্লক করা হয়েছিল।তাঁর কথায়, ‘‘অ্যাকাউন্ট চেক করার পর দেখতে পাই ২৮ বার ট্রানজাকশনের মাধ্যমে ১৫টি ভিন্ন ভিন্ন অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো হয়েছে। এগুলির মধ্যে একটি ট্রানজাকশনও আমি বা আমার বাড়ির কেউ করেনি।’’

মুম্বই পুলিশের ডেপুটি কমিশনার আকবর পাঠানের কথায়, ‘‘এক ব্যবসায়ীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে ১ কোটি ৮৬ লক্ষ টাকা উধাও হওয়ার অভিযোগ আমরা পেয়েছি। অপরাধীদের কাছে তাঁর ফোন নম্বর এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের যাবতীয় তথ্য ছিল। আমরা মানুষের কাছে একটা বার্তা পৌঁছে দিতে চাই যে, আপনার অজান্তে ফোন ব্লক হয়ে গেলেই আগে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।’’

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button