দ্বিতীয় ম্যাচের আগে টাইগারদের হুঁশিয়ারি উইলিয়ামসনের

0
18

ঢাকা , ০৩ মার্চ , (ডেইলি টাইমস২৪):

তৃতীয় দিন শেষে বাংলাদেশ দল পিছিয়ে ছিল ৩০৭ রানে, হাতে ছিল ৬টি উইকেট। দিনের শেষ সেশনে ৪টি উইকেট তুলে নিয়ে চতুর্থ দিন সকালেই সহজ জয়ের আশায় ছিলো কিউইরা। কিন্তু তাদের জয়টা অত সহজেই নিতে দেননি সৌম্য সরকার ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

দুজনই খেলেছেন ১৪০+ রানের ইনিংস। সৌম্য থেমেছেন ১৪৯ রানে আর মাহমুদউল্লাহ আউট হয়েছেন ১৪৬ রানে। দুজন মিলে পঞ্চম উইকেটে গড়েছেন ২৩৫ রানের জুটি, অবিচ্ছিন্ন কাটিয়েছেন চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনটা। ম্যাচ জিততে দিনের প্রায় শেষ পর্যন্ত খেলতে হয়েছে কিউইদের।

ম্যাচের ফলাফল ইনিংস ও ৫২ রানের ব্যবধানে জয়ী নিউজিল্যান্ড। কিন্তু ম্যাচের চিত্র যে আসলে ঠিক এতোটা পরিষ্কার তথা সহজ ছিল না তা বোঝা যাবে সৌম্য-মাহমুদউল্লাহর জুটির সময় নিউজিল্যান্ডের বারবার বোলিং পরিকল্পনা বদনালোর চিত্র খেয়াল করলেই।

ম্যাচ শেষে তা মেনে নিয়ে উইলিয়ামসন বলেন, ‘আমি মনে করি আজ (চতুর্থ দিন) বোলারদের জন্য বিশাল এক চ্যালেঞ্জ ছিল। গত দিন বিকেলে বেশ কিছু উইকেট তুলে ফেলায় আমরা আশাবাদী ছিলাম। কিন্তু আজ বাংলাদেশ দল দারুণ খেলেছে, সতেজ ব্যাটিংয়ে আমাদের বোলারদের পরীক্ষায় ফেলেছে। তবে কৃতিত্ব আমাদের বোলারদেরই। তারা নিজেদের পরিকল্পনায় কোনো ত্রুটি রাখেনি, ভুলও করেছে খুব কম।’

এসময় তিনি জানান বাংলাদেশের কাছ থেকে এমন ঘুরে দাঁড়ানো ব্যাটিংয়ের ব্যাপারে সচেতন ছিলেন তারা। একইসঙ্গে তিনি এও জানিয়ে রাখেন ওয়েলিংটনে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি হবে আরও কঠিন।

নিউজিল্যান্ডের গত সফরে ওয়েলিংটন টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৫৯ রানের জুটি গড়েছিলেন সাকিব আল হাসান (২১৭) ও মুশফিকুর রহীম (১৫৯)। তবে ম্যাচ জেতা হয়নি বাংলাদেশের।

সেখানেই এবারের সফরের দ্বিতীয় টেস্টের আগে কিউই অধিনায়ক বলেন, ‘আমি মনে করি আজ (চতুর্থ দিন) যে লড়াইটা হলো সেটা টেস্ট ক্রিকেটের চিরাচরিত চরিত্র। হ্যাঁ অনেক এগিয়ে থেকে ম্যাচ জেতাটা সবসময়ই দারুণ।তবে আজকের চ্যালেঞ্জটা সত্যিই কঠিন ছিলো। আমরা এমনটাই ধরে রেখেছিলাম এবং ওয়েলিংটনের ম্যাচটি আরও কঠিন হতে যাচ্ছে।’