আইন ও আদালত

বিরামপুরে ধর্ষণ মামলার ‘মূল হোতা’ গ্রেপ্তার

ঢাকা , ০৭ মার্চ , (ডেইলি টাইমস২৪):

দিনাজপুরের বিরামপুরে এক তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় শাহিন আলম (২৮) নামের এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার নবাবগঞ্জ উপজেলায় বন্ধুর বাড়ি থেকে শাহিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

শাহিন আলম বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের বেনিপুর গ্রামের মৃত শাহজাহান আলীর ছেলে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও বিরামপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা প্রথম আলোকে বলেন, শাহিন ওই ধর্ষণের ঘটনার মূল হোতা।

কাটলায় গত ১৮ জানুয়ারি সন্ধ্যায় এক তরুণী (২২) ধর্ষণের শিকার হন। ঘটনার পরদিনই ওই তরুণী বাদী হয়ে পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ধর্ষণের শিকার তরুণী প্রথম আলোকে বলেছিলেন, নিজের বাড়ি থেকে হেঁটে নানির বাড়ি যাওয়ার পথে অভিযুক্ত পাঁচজন তাঁকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ওই তরুণী জানিয়েছিলেন যে তিনি একটি পোশাক কারখানায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন।

পুলিশ বলছে, ধর্ষণের ঘটনার পর থেকে শাহিন আলম পলাতক ছিলেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে জানা যায়, শাহিন আলম নবাবগঞ্জ উপজেলার শান্তিরমোড় গ্রামের মামনুর রশিদের বাড়িতে আত্মগোপন করে আছেন। খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল গিয়ে শাহিন আলমকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শাহিন ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। এ মামলায় এজাহারভুক্ত পাঁচ আসামির মধ্যে শাহিনসহ তিন আসামিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। আরেক আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন।

বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত মিলেছে কিছুদিন আগে। বাকি একজন আসামিকেও দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button