সারাদেশ

মাদ্রাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগে মামলা

ঢাকা , ১১ মার্চ , (ডেইলি টাইমস২৪):

বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগে আজ সোমবার গৌরনদী মডেল থানায় মামলা হয়েছে। ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলায় আবদুর রব সেরনিয়াবাদ টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট কলেজের তিন ছাত্রকে আসামি করা হয়। পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

স্থানীয় লোকজন, বাদীর পরিবার ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ওই তিন ছাত্র গৌরনদী পৌর সদরের উত্তর বিজয়পুর মহল্লায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। ওই বাড়ির সামনে দিয়ে মাদ্রাসায় আসা যাওয়া করত ওই কিশোরী। তাকে ওই তিন ছাত্রের একজন উত্ত্যক্ত করত। গত জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে ওই ছাত্র ওই কিশোরীর পথরোধ করে মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে নম্বর নেয়। পরে প্রায়ই ফোন করে বিরক্ত করত। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, গত ৭ ফেব্রুয়ারি সকালে ওই ছাত্র ফোন করে জ্বরের কথা জানায় এবং ওষুধ নিয়ে কিশোরীটিকে তাদের মেসে যেতে বলে। ওষুধ নিয়ে ওই কিশোরী মেসে গেলে দরজা বন্ধ করে দিয়ে তিন ছাত্র তাকে ধর্ষণ করে এবং সেই দৃশ্য মোবাইলে ভিডিও করে। একই সঙ্গে তাদের কথামতো না চললে ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়।

এরপর গত ১১ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি সেই ভিডিওর ভয় দেখিয়ে কিশোরীটিকে আরও দুইবার ধর্ষণ করে উত্ত্যক্তকারী ছাত্রটি। বিষয়টি জানাজানি হলে তিন আসামি ওই বাড়ি ছেড়ে গৌরনদী উপজেলার পশ্চিম শাওড়া গ্রামে আরেকটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে চলে যায়। এ বিষয়ে কিশোরীটির পরিবার এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার চাইলে তারা থানায় যাওয়ার পরামর্শ দেন।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাহাবুবুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে আজ সোমবার দুপরে তিনজনকে আসামি করে ধর্ষণ মামলা করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ পশ্চিম শাওড়া গ্রাম থেকে দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে। তবে মূল আসামি পলাতক। ওই কিশোরীর জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য আদালতে ও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button