মোদির বিরুদ্ধে মুখ খুললেন প্রিয়াঙ্কা

0
22

ঢাকা , ১২ মার্চ , (ডেইলি টাইমস২৪):

ভারতের সর্বভারতীয় কংগ্রেসের উত্তর প্রদেশের দায়িত্বে থাকা সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভোটারদের বলেছেন, ‘আপনার ভোট একটি অস্ত্র। ভাবুন এবং সিদ্ধান্ত নিন, কে আপনাদের সামনে বড় বড় কথা বলেছিলেন। চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, কিন্তু সেই চাকরি কোথায়?’

আহমেদাবাদে আজ মঙ্গলবার এক সমাবেশে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এসব কথা বলেন। লোকসভা নির্বাচনের প্রচার উপলক্ষে মহারাষ্ট্রের রাজ্যে কংগ্রেসের প্রথম জনসভায় বক্তব্য দেন প্রিয়াঙ্কা।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, কালোটাকা উদ্ধার করে গরিব মানুষের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ১৫ লাখ টাকা দেওয়া হবে। সেই টাকা কোথায়? নারীর নিরাপত্তার অবস্থা কী? প্রিয়াঙ্কা আরও বলেন, এই দেশের চরিত্র এমন, ভালোবাসায় ঘৃণা উড়ে যাবে। এই জাতি গড়ে উঠেছে ভালোবাসা এবং ভ্রাতৃত্ববোধের ওপর। কিন্তু আজ দেশে যা ঘটছে, তা দুঃখজনক। সচেতনতার চেয়ে বড় কোনো দেশপ্রেম নেই।

প্রিয়াঙ্কা বলেছেন, তিনি সমাবেশে কোনো বক্তব্য দিচ্ছেন না। তিনি তাঁর মনের কথা বলছেন। তিনি বলেন, ‘আমি পীড়া অনুভব করি, যখন দেশের বর্তমান অবস্থা প্রত্যক্ষ করি। সারা দেশে ঘৃণা ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। দেশের প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। তবে মানুষ এই ঘৃণার বাতাস মুছে দিতে পারে। ভালোবাসা এবং ঐক্য ফিরিয়ে আনতে পারে।’

বিজেপি ও নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশে প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘তুচ্ছ কোনো ইস্যুতে আমাদের মনোযোগ দেওয়ার দরকার নেই। আমরা ভেবে দেখতে চাই, নারী, কৃষক ও যুবকদের নিরাপত্তার জন্য কী করা হয়েছে। আপনার ভোট আসলে সেই অস্ত্র, যা কাউকে আঘাত করবে না কিন্তু আপনাকে শক্তিশালী করবে।’ তিনি বলেন, ‘আমার বোন, কৃষক—যাঁরা সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কাজ করেন, তাঁরা এ দেশের উন্নয়ন করেছেন। তাঁরা ছাড়া আর কেউ কাজ করেননি। আমাদের সবার উচিত সেই দায়িত্ব অনুধাবন করা।’

লোকসভার এই নির্বাচনকে দ্বিতীয় স্বাধীনতা আন্দোলন বলে অভিহিত করেছেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি বলেন, দেশকে উন্নয়নের জন্য এগিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে এবারের ভোট দেওয়া হবে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব।