এমন বিপর্যয়ের পরেও বিশ্বকাপ নিয়ে চিন্তিত নন কোহলি

0
18

ঢাকা , ১৪ মার্চ , (ডেইলি টাইমস২৪):

ঘরের মাঠের বাঘ বলা হয় ভারতকে। কিন্তু সেই বিরাট কোহলির দলকেই হারিয়ে ১০ বছর পর ভারতের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজ জিতল সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডেতে ভারতকে ৩৫ রানে হারিয়ে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জয় নিশ্চিত করে অজিরা। বিশ্বকাপের আগে শেষ ওয়ানডে সিরিজ হারে বড় ধাক্কা ভারতের। কিন্তু এই বিপর্যয়ে মোটেও চিন্তিত নন ভারত দলপতি কোহলি। এই হার বিশ্বকাপে প্রভাব ফেলবে না বলেই বিশ্বাস তার।

পাঁচ ম্যাচের এই সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচ হেরে পিছিয়ে পড়েছিল অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু শেষ তিন ম্যাচ জিতে রেকর্ড গড়ে সিরিজ জিতে নেয় অ্যারন ফিঞ্চের দল। কিন্তু ভারত নাকি ইতিমধ্যেই ৩০ মে থেকে ইংল্যান্ডের মাটিতে অনুষ্ঠিতব্য ওয়ানডে বিশ্বকাপ নিয়ে নিজেদের পরিকল্পনা সাজিয়ে ফেলেছে। শুধুমাত্র মিডল-অর্ডারে চার নম্বর জায়গায়টি নিয়ে ভাবতে হচ্ছে দলকে। তাই ঘরের মাঠে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ হারে বিশ্বকাপে প্রভাব পড়ার কোন সম্ভাবনাই দেখছেন না ভারতের অধিনায়ক কোহলি।

তিনি বলেন, ‘বিশ্বকাপের জন্য দল তৈরি। সেরা স্কোয়াড এবং একাদশও ঠিক করে ফেলেছি আমরা। পরিবেশ অনুযায়ী একটা পরিবর্তন হবে। হার্দিক পাণ্ডিয়া দলে ফিরলে ব্যাটিংয়ের শক্তি বাড়বে। বোলিংয়েও আরও সুযোগ বেড়ে যাবে। দল নিয়ে সঠিক পথেই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। এক সিরিজ হার কোনো অজুহাত হতে পারে না। তবে আমাদের খেলার মান আরও বাড়াতে হবে। এই সিরিজ হারলেও যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস নিয়েই বিশ্বকাপে যাব আমরা। গত কয়েক মাসে আমরা যে ক্রিকেট খেলেছি, সে জন্য আমি ছেলেদের নিয়ে গর্বিত।’

দল তৈরি হলেও, একটি জায়গা নিয়ে চিন্তার ভাজ রয়েছে ভারতের। আর সেটি হল মিডল-অর্ডারে চার নম্বর স্থানটি। এই জায়গাটিতে শক্তভাবে থিতু হতে পারছেন না কোনো ব্যাটসম্যানই। এমনটা মনে করেন কোহলি নিজেও। তিনি বলেন, ‘ছেলেদের প্রত্যেককে তাদের দায়িত্ব বোঝানো বাকি আছে। তবে দল প্রায় পুরোটাই তৈরি। তারপরও একটা জায়গা নিয়ে ভাবতে হচ্ছে আমাদের। মিডল-অর্ডারের চার নম্বরে বড় ইনিংস খেলার মতো ব্যাটসম্যান প্রয়োজন।’

বিশ্বকাপের কথা মাখায় রেখে সিরিজের শেষ তিন ম্যাচে দল নিয়ে অনেক বেশি পরীক্ষা-নিরিক্ষা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভারত অধিনায়ক, ‘শেষ তিন ম্যাচে আমরা অনেক বেশি পরীক্ষা নিরিক্ষা করেছি। যারা এখনও দলে নিজেদের জায়গা পাকাপোক্ত করতে পারেনি, তাদের মাঠে নামার সুযোগ দিতে চেয়েছিলাম। তারা কেমন খেলে, সেটা পরখ করা দরকার ছিল। পুরো সিরিজেই আমাদের চেয়ে ভালো ক্রিকেটে খেলেছে অস্ট্রেলিয়া। তারা হৃদয় দিয়ে খেলেছে। তাই জয়টা তাদেরই প্রাপ্য ছিল।’