সারাদেশ

বন্দরে প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

ঢাকা , ১৭ এপ্রিল , (ডেইলি টাইমস২৪):

বন্দরে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বন্দরের ঘারমোড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা আমেনা খাতুনের বিরুদ্ধে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে স্কুল ম্যানেজিং কমিটি।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অর্থ আত্মসাতের বিষয়টি তদন্ত করেছে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের গঠন করা দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি। অভিযোগের ব্যাপারে প্রধান শিক্ষিকা আমেনা খাতুন বলেন, তিনি একটি টাকাও আত্মসাত করেননি। তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্যই মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে।

লিখিত অভিযোগে ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা উল্লেখ করেন, বন্দর উপজেলার ঘারমোড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা আমেনা খাতুন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে সরকারি বেসরকারি খাতের ১ লাখ ৯৬ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

তিনি ২০১৬-১৭ ও ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের স্লিপ বরাদ্দের ৮০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন বলেও অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও সহসভাপতিসহ ৮ জন সদস্য অভিযোগপত্রে স্বাক্ষর করেন।

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষিকা আমেনা খাতুন জানান, দেড় বছর আগে সরকারি বরাদ্দ হিসেবে ৮০ হাজার টাকা আসে। স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির স্বাক্ষর নিয়ে তিনি ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করেন এবং বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজে ব্যয় করেন। তিনি একটি টাকাও আত্মসাৎ করেননি।

এ ব্যাপারে তদন্ত কমিটির সদস্য বন্দর উপজেলা শিক্ষা অফিসের সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা বিপ্লব জানান, অভিযোগ তদন্তে তাকে এবং সহকারী শিক্ষা অফিসার মাহবুব হোসেনকে সদস্য করে দুই সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি হয়েছে। তারা বিষয়টি তদন্ত করেছেন। খুব শিগগির তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবেন বলে জানান।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button