রাজনীতি

দেশে অপসংস্কৃতি আর অপরাজনীতি চলছে : জিএম কাদের

ঢাকা , ২৯ এপ্রিল , (ডেইলি টাইমস২৪):

দেশে সংস্কৃতির নামে অপসংস্কৃতি আর রাজনীতির নামে অপরাজনীতি চলছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের।

বুধবার (২৯ মে) রাজধানীর রমনা ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে জাতীয় যুব সংহতি আয়োজিত সংবর্ধনা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, সমা সেবা ও রাজনীতিতে অবক্ষয় শুরু হয়েছে। কিছু মানুষ রাজনীতিকে ব্যবসায় পরিণত করেছে। রাজনীতিতে যারা যত বেশি টাকা লগ্নি করতে পারে, তারাই বেশি লাভবান হচ্ছে। শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবাও এখন ব্যবসায় পরিণত হয়েছে। অথচ এটি হওয়া উচিত নয়। আমরা রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনতে চাই।

জাপাকে সাধারণ মানুষের ভালোবাসার দলে পরিণত করা হবে জানিয়ে কাদের বলেন, জাতীয় পার্টি সব সময় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করবে। শুধু রাজনীতিবিদদের সমালোচনা করলে চলবে না, যোগ্য নেতৃত্ব নির্বাচনে সাধারণ মানুষকে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে হবে।

বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করা হবে। নেতাকর্মীদের শুধু কর্মসূচি বাস্তবায়ন করলেই চলবে না। পার্টির নেতৃত্ব নির্বাচন এবং কর্মকৌশল নির্ধারণেও ভূমিকার রাখতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পার্টির মহাসচিব ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, বিএনপি তাদের কৃতকর্মের ফল ভোগ করছে। পল্লীবন্ধু এইচএম এরশাদকে জেলখানায় ইফতারে একটি খেজুর খেতে দেয়নি। অথচ তারা এখন খালেদা জিয়ার ইফতার নিয়ে অভিযোগ তুলছেন।

তিনি বলেন, বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশনের মেয়রদের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা দেয়া হচ্ছে অথচ সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে নির্বাচিত রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে এখনো মন্ত্রীর পদমর্যাদা দেয়া হয়নি। এ সময় তিনি দ্রুত রংপুরের মেয়রকে মন্ত্রীর মর্যাদা দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

জাতীয় যুব সংহতির সভাপতি আলমগীর সিকদার লোটন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় এবং যুবসংহতির নেতা অ্যাড. মো. জুলফিকার হোসেন বোঁচাগঞ্জ এবং মো. জহিরুল ইসলাম ভূইয়া তাড়াইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় যুবসংহতি এ সংবর্ধনার আয়োজন করে।

জাতীয় যুবসংহতি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক লায়ন আহাদ ইউ চৌধুরী শাহিনের সভাপতিত্বে ও জাতীয় যুবসংহতি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এবং আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব মাহমুদ আলম সংবর্ধনা সভা সঞ্চালনা করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপিকা মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী, অ্যাড. মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, উপদেষ্টা ক্বারী হাবিবুল্লা বেলালী, জাতীয় যুবসংহতির সাধারণ সম্পাদক ফকরুল আহসান শাহজাদা, জাতীয় যুবসংহতি কেন্দ্রীয় প্রাদেশিক সাংগঠনিক সম্পাদক উত্তরবঙ্গ প্রদেশ (রংপুর) অ্যাড. মো. জুলফিকার হোসেন, তাড়াইল উপজেলা চেয়ারম্যান ও জাতীয় যুবসংহতির আহ্বায়ক মো. জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়ার (শাহিন) পক্ষে তার বোন উম্মে হানি।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button