রাজনীতি

রিজভীর জন্য ছাত্রদলের অ্যাম্বুলেন্স!

ঢাকা , ১২ জুন , (ডেইলি টাইমস২৪):

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনে বয়সসীমা তুলে দেওয়া ও নিয়মিত কমিটির দাবিতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সকাল থেকে বিক্ষোভ করছে সংগঠনটির একটি পক্ষের বেশ কিছু নেতাকর্মী। দাবি আদায়ে তারা মূল ফটকে তালা দিয়ে নেতাদের ভেতরে প্রবেশে বাধাও দেয়া হয়। দাবি করা হয় ভেতরে অবস্থান করা অসুস্থ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিবকে কার্যালয় থেকে বের করে দেয়ারও। এজন্য সংগঠনটির পক্ষ থেকে রিজভীর জন্য কার্যালয়ের সামনে আনা হয় একটি অ্যাম্বুলেন্স। কিছু সময় অবস্থান করার পর রিজভীকে না নিয়েই চলে যায় অ্যাম্বুলেন্সটি।

এক বছরেরও বেশি সময় ধরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে নিজেকে অনেকটা ‘বন্দী’ করে রেখেছেন রিজভী। গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসনের সাজার পর থেকে তার মুক্তির দাবিতে মাঝে মাঝে বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেন রিজভী। দলীয় কার্যালয়ের আশপাশে ঝটিকা মিছিল করে দ্রুত কার্যালয়ে ঢুকে পড়েন। আবার মাঝে মাঝে অনেকটা লুকিয়ে সূর্য উঠার আগে ও সাতসকালে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মিছিল করেন। এরপর দ্রুত কার্যালয়ে ঢুকে পড়েন।

গত দুই দিন ধরে অসুস্থ হয়ে পড়েন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব। এরপর কার্যালয়ের ভেতরেই তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার সকালে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের সামনে জড়ো হন। এরপর ভেতরে অবস্থান করা রুহুল কবির রিজভীকে কার্যালয় ছেড়ে যাওয়ার দাবি করেন তারা। অসুস্থ বিএনপি নেতাকে হাসপাতালে নেওয়ার জন্য কার্যালয়ের সামনে নিয়ে আসা হয় একটি বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স। বেলা দুটার দিকে অ্যাম্বুলেন্সটি আসার পর আন্দোলনকারী স্লোগান শুরু করে। দ্রুত রিজভী আহমদকে বের করে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন তারা।

রিজভীর জন্য অ্যাম্বুলেন্স আনার খবর পেয়ে সেখানে দায়িত্বরত গণমাধ্যমকর্মীদের মধ্যে হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে যায়। যেকোনো সময় রিজভী আহমদকে নিয়ে যাওয়া হতে পারে এমন খবরও ছড়িয়ে পড়ে। তবে ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর অ্যাম্বুলেন্সের চালকের সঙ্গে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক মুন্নাকে দেখা যায় কথা বলতে। এর অল্প একটু পরই অ্যাম্বুলেন্সটি দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে চলে যায়।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button