জাতীয়প্রবাসের খবর

বাংলাদেশ ভুটান ভারত নেপালে চলবে সব ধরনের যান

ঢাকা, ৮ জুন ( ডেইলি টাইমস্২৪) :

বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালে যাত্রীবাহী, পণ্যবাহী ও ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচলের খসড়া চুক্তির প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ‘মোটর ভেহিকেলস অ্যাগ্রিমেন্ট ফর দ্য রেগুলেশন অব প্যাসেঞ্জার, পারসোনাল অ্যান্ড কার্গো ভেহিকুলার ট্রাফিক বিটুইন বাংলাদেশ, ভুটান, ইন্ডিয়া অ্যান্ড নেপাল’-এর খসড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘এটি বিবিআইএন চুক্তি নামে অভিহিত হবে। আজ সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ এই খসড়া মন্ত্রিসভায় উত্থাপন করে।’

আগামী ১৫ জুন ভুটানে অনুষ্ঠিত মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এই চুক্তি সই হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব। এই চার দেশের মধ্যে যান চলাচলের জন্য আলাদা কোনো কাগজ লাগবে না। শুধু স্ব স্ব দেশের বৈধ কাগজপত্র থাকলেই এসব যান চলাচল করতে পারবে বলে জানান তিনি।

সচিব আরো বলেন, ‘এটিকে চার দেশীয় ট্রানজিট এবং ট্রান্সশিপমেন্ট বলতে পারেন। তবে এখানে সার্কভুক্ত দেশগুলো পর্যায়ক্রমে চাইলে অন্তর্ভুক্ত হতে পারবে।’

‘ট্রানজিট ও ট্রানশিপমেন্ট এখন কোনো নেতিবাচক পরিভাষা নয়। এই চুক্তি থেকে কানেকটিভিটি বাড়বে। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর একান্ত উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় এটি হচ্ছে। এর রুটগুলো সরাসরি ভুটানে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে ঠিক করা হবে,’ যোগ করেন মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা।

২০১৪ সালে কাঠমান্ডুতে সার্ক শীর্ষ সম্মেলনে এই চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ার কথা ছিল। তবে একটি দেশ তাদের অভ্যন্তরীণ প্রক্রিয়া শেষ করতে না পারায় সে সময় চুক্তি হয়নি বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। কিছুদিন আগে চেন্নাইতে চার দেশীয় ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারিরা এই চুক্তি করতে চুক্তিবদ্ধ হন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button