জাতীয়

আজ খুশির ঈদ

ঢাকা, ৮  জুলাই(ডেইলি টাইমস ২৪):

বাংলাদেশের আকাশে শুক্রবার পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে প্রায় এক মাস সিয়াম সাধনার পর আজ শনিবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর পালিত হবে।

আরটিএনএন পরিবারের পক্ষ থেকে সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা- ঈদ মোবারবক।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ ঘোষণা দেয়া হয়।

এর আগে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে হিজরি ১৪৩৬ সনের পবিত্র ঈদুল ফিতরের তারিখ নির্ধারণ ও শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনার জন্য বৈঠকে বসে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি।

সভায় দেশের সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়সহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রাপ্ত তথ্য পর্যালোচনা করে সন্ধ্যায় বাংলাদেশের আকাশে পবিত্র শওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে বলে জানানো হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্মমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।

এদিকে, পবিত্র এই ঈদুল ফিতর যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে উদযাপনের লক্ষ্যে সরকারি ও বেসরকারিভাবে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

এ বছর পবিত্র ঈদুল ফিতরে জাতীয় ঈদগাহে দেশের প্রধান ঈদ জামাত ও বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পাঁচটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত ঢাকায় হাইকোর্ট সংলগ্ন জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে সকাল সাড়ে আটটায় অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে প্রথম জামাত সকাল সাতটায়, দ্বিতীয় জামাত সকাল আটটায়, তৃতীয় জামাত সকাল নয়টায়, চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায় এবং পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত হবে।

বিগত বছরের ন্যায় এ বছরেও জাতীয় ঈদগাহ ও বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পুরুষদের পাশাপাশি মহিলাদের জন্য ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায়ের আলাদা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, জাতীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিতব্য ঈদের জামাতে অংশগ্রহণকারী মুসল্লিদের মোবাইল, ক্যামেরা ও ভ্যানিটি ব্যাগ ইত্যাদি সঙ্গে না আনার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া পৃথক বাণী দিয়েছেন।

বাণীতে তারা দেশবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়ে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি ও কল্যাণ কামনা করেছেন।

সারাদেশে যথাযোগ্য মর্যাদা ও আনন্দ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ঈদ উৎসব উদযাপনের জন্য সরকারি ও বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সড়ক সজ্জিতকরণসহ আলোকসজ্জার ব্যবস্থা ও বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল, কারাগার, শিশু পরিবার, ছোটমনি নিবাস, সামাজিক প্রতিবন্ধী কেন্দ্র, সরকারি আশ্রয় কেন্দ্র, শিশু বিকাশ কেন্দ্র, সেফ হোমস, ভবঘুরে কল্যাণ কেন্দ্র ও দুঃস্থ কল্যাণ কেন্দ্রে ঈদের দিন উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে।

ঈদের গুরুত্ব সম্পর্কে ঈদের পূর্বেই সেমিনার/আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেসরকারি টেলিভিশন ও বেতারসমূহ ঈদের দিন বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচারসহ সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানমালা আয়োজন করেছে। ঈদ উপলক্ষে সংবাদপত্রসমূহ ইতোমধ্যেই বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ করেছে।

ঈদের দিন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনা টিকিটে ঢাকা সিটি করপোরেশন (উত্তর ও দক্ষিণ) এর আওতাধীন সকল শিশুপার্কে প্রবেশ ও বিনোদনের ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়া ঈদের দিন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনা টিকিটে ঢাকা জাদুঘর প্রদর্শনের ব্যবস্থা করছে।

জাতীয় পর্যায়ের সঙ্গে সমন্বয় রেখে স্থানীয় পর্যায়ে সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দেশব্যাপী ঈদ উদযাপন করা হবে।

বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসসমূহেও সরকারি কর্মসূচির আলোকে যথাযোগ্য মর্যাদায় ঈদুল ফিতর পালিত হবে।

ঢাকা, জুলাই(ডেইলি টাইমস ২৪),বা/খ:

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button