খেলাধুলা

তামিম এক ম্যাচ নিষিদ্ধ, সাথে লাখ টাকা জরিমানা

ঢাকা, ২২ জুন, (ডেইলি টাইমস ২৪):

আবাহনী লিমিটেডের অধিনায়ক তামিম ইকবাল ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে ম্যাচে আম্পায়ারের সঙ্গে অসৌজন্যমুলক আচরণ করেছিলেন। এর শাস্তি হিসেবে তাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা ও এক ম্যাচের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে। যদিও কোনও ম্যাচে তিনি খেলতে পারবেন না তা পরবর্তীতে নির্ধারণ করা হবে। শাস্তি পেয়েছেন প্রাইম দোলেশ্বরের হয়ে খেলা জাতীয় দলের অলরাউন্ডার নাসির হোসেনও। তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ম্যাচটি স্থগিত রয়েছে। আবাহনী-দোলেশ্বর এই স্থগিত ম্যাচের ফলের ওপরই নির্ভর করছে ডিপিএলের চ্যাম্পিয়ন দল নির্ধারণ। কেননা, আবাহনী ও দোলেশ্বর এই দুই দলই কেবল শিরোপা দৌড়ে সামিল রয়েছে বর্তমানে।

গত ১২ জুন ডিপিএলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল আবাহনী ও দোলেশ্বর। ম্যাচে মাত্র ১৯১ রানে আবাহনীকে বেঁধে ফেলেছিল দোলেশ্বর। এরপর দোলেশ্বরের ১৬তম ইনিংসে আম্পায়ারের একটি সিদ্ধান্ত কেন্দ্র করে ম্যাচে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। আবাহনীর স্পিনার সাকলাইন সজীবের বলে ব্যাট করছিলেন দোলেশ্বরের রাকিবুল হাসান। তার বিপক্ষে স্ট্যাম্পিংয়ের জোড়ালো আবেদন করে আবাহনীর খেলোয়াড়রা। কিন্তু আম্পায়ার তাতে সাড়া দেননি। এরপর দুই অনফিল্ড আম্পায়ারে সঙ্গে তর্কাতর্কিতে লিপ্ত হন তামিম এবং আবাহনীর অন্যান্য খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা। তামিমের বিপক্ষে আম্পায়ারকে গালিগালাজ করার অভিযোগও উঠে। আম্পায়রা এক পর্যায়ে মাঠ ছেড়ে চলেও যান। দোলেশ্বরের সংগ্রহ ছিল তখন ২ উইকেটে ৫৯ রান।

পরবর্তীতে আম্পায়াররা মাঠে ফেরেন এবং ম্যাচটি ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু দোলেশ্বরের খেলোয়াড়র ও কর্মকর্তারা এতে আপত্তি জানান। যেখানে নিজেদের কোনো দোষ নেই, প্রাকৃতিক কোনো কারণে ম্যাচে বিঘ্ন ঘটেনি এবং রিজার্ভ ডে রাখা আছে; সেখানে ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিকে মেনে নিতে পারেনি দোলেশ্বর। শেষ অব্দি বিকেএসপি মাঠের ওই ম্যাচটি এখনো স্থগিত রয়েছে।

বুধবার (২২ জুন) বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, আবাহনী-দোলেশ্বর স্থগিত ম্যাচটি পুনরায় অনুষ্ঠিত হবে। তবে তা কবে কখন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে সেই বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ওই সংবাদ সম্মেলনেই তামিম ও নাসিরের শাস্তির বিষয়ে জানিয়েছেন পাপন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button