বিনোদন

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র না হওয়াটা লজ্জার!

ঢাকা, ২২ জুন, (ডেইলি টাইমস ২৪):

বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তার জীবন ও কর্ম বিশ্বজুড়েই মানুষের কাছে আদর্শ ও অনুপ্রেরণার। বহির্বিশ্বের দেশগুলোতে শেখ মুজিব একজন আজন্ম বিপ্লবী হিসেবেও সমাদৃত।

এই মহান নেতার সংগ্রামী জীবন নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করলে বাংলা চলচ্চিত্র সমৃদ্ধ হবে বলে মনে করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। সেইসঙ্গে তিনি জানান, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আজ পর্যন্ত আমাদের দেশে কোনো চলচ্চিত্র নির্মাণ হয়নি। এটা জাতি হিসেবে আমাদের জন্য লজ্জার। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করলে সবরকম সহায়তা দেবে সরকার। গত মঙ্গলবার (২১ জুন) রাজধানীর হোটেল রাজমণি ঈশাখাঁয় এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের ওপর পূর্ণাঙ্গ চলচ্চিত্র নির্মাণ সময়ের দাবি’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে সার্ক চলচ্চিত্র সাংবাদিক ফোরাম, বাংলাদেশ। সেখানেই মন্ত্রী এই বক্তব্য দেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীনতার স্থপতি। বাঙালির জাতির ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু এক মহাকাব্য, একটি প্রতিষ্ঠান। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ইতোমধ্যে অসংখ্য কাব্যগ্রন্থ, গল্প, উপন্যাস, নাটক, স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, ডকুমেন্টারি নির্মিত হয়েছে। কোনো রাজনৈতিক নেতাকে নিয়ে এত বেশি কবিতা, কাব্যগ্রন্থ, গল্প, উপন্যাস, নাটক, স্বল্পদৈঘ্য চলচ্চিত্র, ডকুমেন্টারি নির্মাণের ঘটনা পৃথিবীতে বিরল। কিন্তু তাকে নিয়ে এখনো কোনো চলচ্চিত্র নির্মিত হয়নি। এটা বেদনার। অথচ বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হলে সেটি জাতির জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি হতে পারতো।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘এখন অনেক তরুণ মেধাবী নির্মাতারা চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন। তাদের চলচ্চিত্রগুলো দেশে-বিদেশে সমাদৃত হচ্ছে। তাদের সামাজিক দায়িত্ব হওয়া উচিত বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছবি নির্মাণ। কেননা, এই মানুষটির জন্যই আজ তার টিকে থাকা। এই মানুষটির জন্যই আজকের বিশাল চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি।’

আমির হোসেন আমু বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বর্তমান সরকার ইতিবাচক সামাজিক পরিবর্তনের নতুন ধারা সূচনা করেছে। একে এগিয়ে নিতে হলে সুস্থ ধারার ও জীবন ঘনিষ্ঠ চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে হবে। পাশাপাশি নতুন প্রজন্মের প্রতি সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে অশ্লীল ও মূল্যবোধবিরোধী চলচ্চিত্র নির্মাণ পরিহার করতে হবে।’

এসময় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ‘এখন পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ হয়নি, এটা দুঃখজনক। এমন চলচ্চিত্র নির্মাণ করা এখন সময়ের দাবি। আজকের এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তা এক ধাপ এগিয়ে যাবে বলে আমার বিশ্বাস।’

আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন শিল্প মালিকদের সর্ববৃহৎ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহম্মদ, আবদুল মোমেন গ্রুপের ডিএমডি মাঈদুদ্দিন মোমেন, শিল্পকলা একাডেমির সাবেক পরিচালক সফি কামাল প্রমুখ।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button