স্বাস্থ্য

কলায় এইচআইভি পজিটিভ! আমেরিকায় আতঙ্ক!

ঢাকা, ০৩ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমায় ওয়ালমার্টের একটি শপিং মল থেকে কিনে নেওয়া কলা খেয়ে অন্তত ৮টি শিশুর শরীরে এইচআইভি পজিটিভ ধরা পড়েছে!

ওকলাহোমার টুলসা এলাকায় ১০ বছরের একটি ছেলে এই ভাইরাসে আক্রান্ত বলে প্রথম ধরা পরে। সামাজিক মাধ্যমগুলোতে এ সংক্রান্ত একটি খবর চাউড় হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ওয়ালমার্ট থেকে শিশুটির মা কলা কিনে নিলে তা খাওয়ার পর সে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। প্রচণ্ড জ্বর, শীত ও শরীর অবসন্ন হয়ে পড়ে তার।

দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তার শরীরে এইচআইভি ভাইরাস ধরা পড়ে। এতে হতবাক হয়ে যান চিকিৎসকরাও। এরপর জানা যায় এই ছেলেটিই কেবল নয় একই ধরনের অসুস্থতা নিয়ে ওই সময় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে আরও অন্তত ৭টি শিশু। যাদের বয়স ১৭ বছরের নীচে। এবং প্রত্যেকেরই পরীক্ষায় এইচআইভি পজিটিভ ধরা পড়েছে। আর এই শিশুদের পরিবারের প্রত্যেকের ক্ষেত্রেই একটি বিষয় সাধারণ ছিলো। তা হচ্ছে তারা ওকলাহোমার টুলসা ওয়ালমার্ট থেকে কলা কিনেছিলো।

ওই সময়ে শিশুরা সেসব খাবার গ্রহণ করে তার সবগুলোই পরীক্ষা করা হয়। এছাড়া আগের কয়েক মাস ধরে তারা কোথায় কোথায় গেছে সেগুলো যাচাই করে দেখা গয়। আর পরে জানা যায় সবাই ওই একই সুপারস্টোর থেকে কেনা কলা খেয়েছে।

এরপর পরীক্ষা করা হয় ওই স্টোরের কলা। আর তাতেই ধরা পরে এইচআইভি ভাইরাসের অস্তিত্ব। গবেষকরা এখন বোঝার চেষ্টা করছেন কি করে কলার ভেতরে এই ভাইরাস ঢুুকে পড়লো, আর কেবল তাই নয়, সেখানে সক্রিয় থাকলো এবং সেগুলো খাওয়ার পর শিশুরা আক্রান্ত হলো।

এদিকে এই ঘটনার পর গোটা আমেরিকার সকল স্থানে ওয়ালমার্টের সুপারস্টোর থেকে কলা সরিয়ে ফেলা হয়েছে। তবে পুরো ঘটনাটিকেই বানোয়াট বলছে যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার সংবাদমাধ্যমগুলো। ওদিকে খবরটি ছড়িয়েছে এমন কোনও কোনও সোশ্যাল মিডিয়া এই খবরও দিচ্ছে গোটা আমেরিকাতেই কলা খাওয়ার ব্যাপারে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আর খেলেও শরীরে জ্বর, ঠাণ্ডা, শরীরে র‌্যাশ ওঠা, রাতে ঘাম, পেশিতে ব্যাথা, গলা বসে যাওয়া, অবসন্নতা এগুলো অনুভূত হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে বলা হয়েছে।

তবে পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানো এই খবরটিকে ভূয়া ও বানোয়াট বলেেই নিশ্চিত হওয়া গেছে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button