লাইফস্টাইল

মেয়েরা কেন “খারাপ” ছেলেদেরকে পছন্দ করে?

ঢাকা, ১৪ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

 

বিয়ে করার ক্ষেত্রে শান্ত-সুবোধ একটি পুরুষের খোঁজ করলেও প্রেম করার ক্ষেত্রে কেন যেন মেয়েরা একটু অমার্জিত, এলোমেলো পুরুষগুলোকেই বেছে নেয়, তাই না? আপনিও হয়তো নিজের আশেপাশে এমন অনেক মেয়েকেই দেখেছেন তার সাথে একেবারেই বেমানান, “খারাপ” একটা ছেলের সাথে চুটিয়ে প্রেম করছে। আবার প্রেম না করলেও অমন রুক্ষ, সমাজের চোখে বর্জনীয় ছেলেদের প্রতি আকর্ষণ থাকে কিছু মেয়ের। সাম্প্রতিক ঘটনাগুলোতেই দেখা যাচ্ছে রীতিমতো সন্ত্রাসী হিসেবে কুখ্যাতি পাওয়া পুরুষের ওপর “ক্রাশ” তৈরি করা মেয়েদের অভাব নেই। এর পেছনে সোশ্যাল মিডিয়ার দায় আছে সত্যি, কিন্তু এটাও আসলে সত্যি যে “খারাপ” ছেলেদের প্রতি মেয়েদের আকর্ষণটা সবসময়েই থাকে। এ ব্যাপারটা সম্প্রতি উঠে এসেছে একটি গবেষণায়। চলুন দেখে নিই এর খুঁটিনাটি।
আলোচনা করার সময়ে অনেক মেয়েই বলে তারা পুরুষের মাঝে অমুক গুণ, তমুক বৈশিষ্ট্য দেখতে চায়। আসলে কিন্তু বাস্তব জীবনে হয়তো তারা এমন ছেলেকেই পছন্দ করে যারা ধূমপান করছে, মুখভর্তি খোঁচা খোঁচা দাড়ি নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। কেবল আমাদের দেশে এমন ঘটনা ঘটে ভাবলে ভুল করবেন, এটা মোটামুটি পৃথিবীজোড়া একটি ধারণা। পুরুষেরা তো ধরেই নেন স্মোক করলে মেয়েরা তাদেরকে প্রশংসার দৃষ্টিতে দেখবে। চলুন দেখি বিজ্ঞান সমর্থিত প্রমাণ পাওয়া যায় কিনা।
একটি গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদেরকে ধরিয়ে দেওয়া হয় সুজান নামের একটি কাল্পনিক মেয়েকে সাহায্য করার কাজ। তিনজন পুরুষের মাঝে সেই মেয়ে কাকে বেছে নেবে সেই ক্ষেত্রে তাকে সাহায্য করা হয়। এক্ষেত্রে পুরুষ তিনজন প্রশ্নের উত্তর দেয় এবং এই উত্তরের ভিত্তিতে গবেষণায় অংশগ্রহণকারীরা পুরুষটিকে নির্বাচন করেন। একটি পুরুষ প্রশ্নের ইতিবাচক উত্তর দেয়, সে ছিলো অনুভুতিসম্পন্ন, দয়ালু। আরেকজন পুরুষের মাঝে পুরুষোচিত রুক্ষতা দেখা যায়। তৃতীয় জন ছিলো নিরপেক্ষ ধরণের। গবেষণায় দেখা যায় ভালো প্রকৃতির পুরুষটিকেই বেশীরভাগ মানুষ বেছে নেয় সুজানের সঙ্গী হিসেবে।
আরেকটি গবেষণায় অংশগ্রহণকারীরা পড়েন ডেটিং করতে ইচ্ছুক মানুষদের অ্যাড। এতে পরোপকারী পুরুষদেরকে বেশি সংখ্যক মানুষ পছন্দ করে বলে দেখা যায়। এছাড়াও অন্যান্য গবেষণায় দেখা যায় যখন চিন্তা করতে বলা হয় তখন নারীরা ভদ্র, ইতিবাচক ধরণের মানুষকে সঙ্গী হিসেবে নির্বাচন করেন। কিন্তু বাস্তব জীবনের ক্ষেত্রে কী ঘটে?
চিন্তাভাবনায় ভালো মানুষ খুঁজলেও অনেক সময়েই আমরা “খারাপ” মানুষের প্রেমে পড়ে যাই। আত্মকেন্দ্রিক, আত্মপ্রেমি অর্থাৎ নার্সিসিস্ট ধরণের মানুষকে অনেক সময়ে মেয়েরা আকর্ষণীয় বলে ধরে নেয়। দাম্ভিকতা এবং অন্যকে ছোট করে দেখার প্রবণতাটা অনেক মেয়েকেই টানে। এ ধরণের নারী ও পুরুষ উভয়েই নিজের বাহ্যিক সৌন্দর্যের প্রতি সচেতন থাকে বলে তাদের প্রতি অন্যদের আকর্ষণ বেশি হয়। কম সময় স্থায়ী সম্পর্কের জন্য মেয়েরা এদেরকে বেছে নেয়। এসব মানুষ বেশি সময় সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে পারে না।
হয়তোবা বিগত সম্পর্কগুলোতে এমন খারাপ আচরণে অভ্যস্ত হয়ে যাওয়া, অথবা সামাজিক ধারণা যে খারাপ ছেলেরা ভালো প্রেমিক হয়, অথবা কেবলই ভুল সিদ্ধান্তের কারণে মেয়েরা এমন “খারাপ” ছেলেদের প্রতি আকৃষ্ট হয়। বাস্তব জীবনে এটা দেখা গেলেও গবেষণায় দেখা যায় মনে মনে নারী ও পুরুষ উভয়েই ভালো, ভদ্র ও মার্জিত মানুষকেই নিজের পাশে পেতে চান। মেয়েরা সবসময় “খারাপ” ছেলেদেরকেই পছন্দ করে না। সামাজিক ধ্যান ধারণার কারণেই কেউ কেউ তেমন ছেলেদের ভালো প্রেমিক মনে করে, অথবা বাহ্যিক চাকচিক্য দেখে আকৃষ্ট হয়। কিছু কিছু মেয়েরা হয়তো মানুষের চেহারা দেখে তার অন্য সব ত্রুটির কথা ভুলে যায়। কিন্তু সঙ্গী হিসেবে একজন ভালোমানুষকেই পাশে পেতে চায় বেশিরভাগ মানুষ।

 

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button