লাইফস্টাইল

প্রথম দেখাটি স্মরণীয় করে রাখতে

ঢাকা, ১৫ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

১. আগেই প্রস্তুতি নিন

হঠাৎ করে যদি দেখা হয় তাহলে বিষয়টি আলাদা। কিন্তু আপনার যদি জানা থাকে কার সঙ্গে দেখা হবে তাহলে আগেই তার বিষয়ে কিছু তথ্য জেনে নিন। তার ব্যক্তিগত আগ্রহ, পেশাগত দক্ষতা ইত্যাদি বিষয় জানা থাকলে কথাবার্তা যেমন প্রাণবন্ত হবে তেমন তা উভয়ের স্মরণে রাখাও সহজ হবে। ২. প্রসঙ্গ তৈরি করুন

কোনো বিষয় ছাড়া কারো সঙ্গে আলোচনা করা কঠিন বিষয়। তাই কারো সঙ্গে যদি ব্যবসায়িক আলোচনা করতে চান তাহলে কোন কোন ক্ষেত্রে ব্যবসা বাড়াতে চান সে বিষয়গুলো নোট করে রাখুন। অন্য যেকোনো বিষয়েও একই কথা প্রযোজ্য।

৩. কেউই স্বাচ্ছন্দ্য নয়

মিটিংয়ে অনেকেই অস্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। যদিও এ ক্ষেত্রে একটি বিষয় মনে রাখতে হবে, আপনি যদি অস্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন তাহলে যার সঙ্গে মিটিং করছেন, তিনিও অস্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন। ফলে সেখানে ইগোর মতো বিষয় নিয়ে মাথা ঘামানো উচিত নয়।

৪. সহজভাবে হাসি

হাসি একাধিক মানুষকে একাত্ম হতে সহায়তা করে। তবে সব হাসি একরকম নয়। হাসিতে যদি কৃত্রিমতা থাকে তাহলে তা বিশাল পার্থক্য তৈরি করে। তাই অবজ্ঞার হাসি কিংবা অসময়ে হাসি নয় নয়, সঠিক সময়ে আন্তরিক হাসি হাসুন। এটি আপনার প্রথম দেখাকে সহজ ও স্মরণীয় করে তুলবে।

৫. চোখের দিকে তাকান

যার সঙ্গে আপনার দেখা হবে তার চোখের দিকে তাকান। এ ক্ষেত্রে মানসিক রোগীর মতো তাকালে চলবে না। নম্রভাবে কয়েক সেকেন্ড চোখে চোখ রাখুন। এরপর চোখ নামিয়ে ফেলুন।

৬. সঠিকভাবে অভ্যর্থনা জানান

বিশ্বের নানা প্রান্তে নানাভাবে অভ্যর্থনা জানানোর নিয়ম রয়েছে। এ ক্ষেত্রে আপনি যে ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করছেন তার ওপর অনেক বিষয় নির্ভর করে। আন্তরিকভাবে অভ্যর্থনা জানানোর ক্ষেত্রে সালাম দেওয়া, হাত মিলানো ইত্যাদির গুরুত্ব রয়েছে।

৭. আশপাশের পরিবেশ

দেখা করার সময় আশপাশের পরিবেশটিও যেন উপযুক্ত হয় সেদিকে লক্ষ রাখুন। আপনি যদি সঠিকভাবে তার সঙ্গে কথা বলতে চান তাহলে কথা বলার উপযুক্ত পরিবেশ রয়েছে এমন স্থান বেছে নিন।

৮. তার দিকে মনোযোগ দিন

যে ব্যক্তির সঙ্গে আপনি দেখা করছেন, তার স্বাচ্ছন্দ্যের বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি তাকে আমন্ত্রণ জানান তাহলে তিনি যেন স্বাচ্ছন্দ্যে বসতে ও কথা বলতে পারেন সে জন্য খেয়াল রাখুন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button