খেলাধুলা

রিও অলিম্পিকে ৪ নারী এ্যাথলেট পাঠাবে সৌদি আরব

ঢাকা, ১৮ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

রিও অলিম্পিকে চারজন নারী এ্যাথলেট পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি অলিম্পিক কমিটি। রোববার দেশটির এনওসি থেকে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। মুসলিম অধ্যুষিত দেশটিতে নারীদের ওপর বিভিন্ন বিষয়ে বিধি নিষেধ আরোপিত আছে। এমনকি দেশটিতে কোন নারীর গাড়ি চালানোর কোন অনুমতি নেই। এরপরেও আসন্ন রিও অলিম্পিকে নারীদের দল পাঠানোকে অনেকেই প্রশংসার চোখে দেখেছে। সারা আল-আত্তার, লুবনা আল-ওমাইর, কারিমান আবু আল-জাদালি ও ওজুদ ফাহমি এবারের অলিম্পিক গেমসে সৌদি আরবকে প্রতিনিধিত্ব করবে। এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মত অলিম্পিকে সৌদি আরবের নারী এ্যাথলেটরা অংশগ্রহণ করছেন। যদিও প্রথমে সিদ্ধান্ত ছিল এই দলে শুধুমাত্র সাতজন পুরুষ এ্যাথলেট থাকবে। নারীদের অংশগ্রহণের ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নেয়াটা বেশ কঠিন ছিল। সব ধরনের বিতর্ক এড়াতেই পুরুষ ও নারীদের দল আলাদা আলাদা ভাবে ঘোষণা করা হয়। সৌদি অলিম্পিক কমিটির প্রধান নির্বাহী হোসাম আলকুরাশি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর মধ্যে চারজন নারীই ওয়াইল্ড কার্ডের মাধ্যমে অলিম্পিকে অংশ নিতে যাচ্ছেন। ২০১২ সালের লন্ডন অলিম্পিকে প্রথমবারের মত সৌদির নারী এ্যাথলেটরা অংশ নিয়ে ইতিহাস রচনা করেছিল। এবারের অংশগ্রহণকারী এ্যাথলেটদের মধ্যে আত্তারের অভিজ্ঞতাই বেশী, তিনি লন্ডনেও দলের সাথে ছিলেন। ৮০০ মিটার স্প্রিন্টে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন। তার সাথে এ্যাথলেটিক্সে আরো রয়েছেন আবু আল-জাদালি। তার ইভেন্ট ১০০ মিটার স্প্রিন্ট। এছাড়া ওমাইর ফেন্সিংয়ে ও ফাহমি জুডো অনুর্ধ্ব-৫২ কেজীতে অংশ নিবেন।

সৌদি আরবে নারীদে খেলাধুলার ব্যপারে অনেক কঠিন বাঁধা পেরুতে হয়। যেকোন ইভেন্টেই তাদের মাথা থেকে পা পর্যন্ত ঢেকে অংশগ্রহণ করতে জয়। পড়াশুনা, বিবাহ, বিদেশে ভ্রমণ সব ক্ষেত্রেই তাদের পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি নিতে হয়।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button