অর্থ ও বাণিজ্য

চট্টগ্রাম বন্দরের উন্নয়নে সহায়তার প্রস্তাব এডিবির

ঢাকা, ১৯ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

চট্টগ্রাম বন্দরের উন্নয়নে একযোগে কাজ করতে ভারত, চীন এবং জাপানের মতো দেশ যেমন আগ্রহ দেখিয়েছে, পাশাপাশি দুই বিলিয়ন ডলার সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি)।

প্রবৃদ্ধি’র পাশাপাশি কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়েও সক্ষমতা বাড়ায় চট্টগ্রাম বন্দরের ব্যাপারে আন্তর্জাতিকভাবে আগ্রহের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন বন্দর কর্তৃপক্ষ। তবে বিদেশি সহায়তার পরিবর্তে বন্দরের নিজস্ব তহবিল থেকেই প্রকল্প বাস্তবায়নের মত দিয়েছেন বন্দর ব্যবহারকারীরা।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে ১৭ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি অর্জনের মধ্য দিয়ে ২০ লাখ কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের রেকর্ড গড়েছে। এরই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ২০২০ সালে ২৯ লাখ এবং ২০৩৬ সালে ৫৬ লাখ কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের লক্ষ্যমাত্রাও নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে গেলে সবার আগে প্রয়োজন বন্দরের সম্প্রসারণ।

চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘আমি এটিকে ইতিবাচকভাবে নেব কারণ জাপান যে কাজগুলো করে তারা টেকসই কাজ করে। এবং বে টার্মিনাল একমাত্র জাপানের টেকসই সহযোগিতার মাধ্যমে সম্ভব হবে বলে আমি মনে করি।’

তবে, বিদেশী অর্থায়নের ক্ষেত্রে নানা জটিলতা দেখা দেয়। এক্ষেত্রে বন্দরের নিজস্ব তহবিল থেকেই প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের মত বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান আহসানুল হক চৌধুরীর।

বন্দরের সম্প্রসারণের অংশ হিসেবে ২শ’ ৫০ হেক্টর জমির ওপর গড়ে তোলা হবে বে টার্মিনাল। এছাড়া কর্ণফুলী কন্টেইনার টার্মিনাল এবং পতেঙ্গা কন্টেইনার টার্মিনাল অপারেশনে গেলে কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের পরিমাণ বাড়বে অন্তত ২৫ লাখ।

এ অবস্থায় বে টার্মিনাল, কে সি টি এবং পি সি টি’তে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বিভিন্ন দেশ এবং আর্থিক সংস্থা। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাপান সফরে গিয়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগে এগিয়ে আসার জন্য সেখানকার ব্যবসায়ীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button