আন্তর্জাতিক

দুই দিনেও খোঁজ মেলেনি ভারতীয় উড়োজাহাজের

ঢাকা, ২৪ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

দুইদিন পেরিয়ে গেলেও বঙ্গোপসাগরের আকাশ থেকে নিখোঁজ ভারতীয় বিমান বাহিনীর পরিবহন উড়োজাহাজ এএন-৩২ এর খোঁজ পাওয়া যায়নি। শুক্রবার ভারতের স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৪৬ মিনিটের দিকে ২৯ জন আরোহী নিয়ে চেন্নাই থেকে আন্দামানের পোর্ট ব্লেয়ার যাওয়ার পথে উড়োজাহাজটি নিখোঁজ হয়। আজ রবিবার সকালে দুই দিন পেরিয়ে যাওয়ার পর উড়োজাহাটির ভাগ্যে খারাপ কিছু ঘটেছে এমন আশঙ্কা বাড়ছে। নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে ভারতীয় নৌবাহিনী, কোস্টগার্ড ও বিমান বাহিনী ব্যাপক অনুসন্ধান চালালেও উড়োজাহাজ বা এর ধ্বংসাবশেষের কোনো খোঁজ মিলেনি। ভারতীয় নৌবাহিনী ও কোস্টগার্ডের ১৮টি জাহাজ (যার মধ্যে একটি ডুবোজাহাজও রয়েছে) এবং বিমান বাহিনীর আটটি এয়ারক্রাফট দিয়ে তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে। উদ্ধার অভিযান তদারক করতে শনিবার ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিকর চেন্নাই গিয়েছিলেন। এ সময় দুই ঘন্টা ধরে আকাশপথে চালানো জরিপে অংশ নেন তিনি।   চেন্নাইয়ের নিকটবর্তী তাম্বারাম বিমান ঘাঁটিতে নৌ ও বিমান বাহিনী মন্ত্রীকে অভিযানের বিস্তারিত অবহিত করে। এরপর তিনি আরাকোনাম নৌঘাঁটি থেকে একটি পি-৮১ এয়ারক্রাফটে চড়ে অভিযান পরিস্থিতি সরাসরি পর্যবেক্ষণ করেন। অভিযান থেকে কোনো খবর না আসায় উদ্বিগ্ন হয়ে উঠছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার সকালে উড়োজাহাজটি নিখোঁজ হওয়ার খবর আসার কিছুক্ষণের মধ্যেই উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়েছিল।   ব্যক্তিগতভাবে অভিযান তদারক করার পর নিখোঁজ উড়োজাহাজটি খুঁজে বের করতে প্রয়োজনে অভিযানের পরিসর আরো বাড়ানোর নির্দেশনা দিয়েছেন পারিকর। ঝড়ো আবহাওয়ার কারণে বঙ্গোপসাগরের পরিস্থিতি উত্তাল হয়ে থাকায় তল্লাশি অভিযান নির্বিঘ্ন হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন কয়েকটি সূত্র। যে এলাকা থেকে উড়োজাহাজটি হারিয়ে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে সে এলাকাটি ভারী মেঘে ঢেকে আছে বলে জানিয়েছেন তারা।   পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকেও অবহিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তারা। এ পরিস্থিতিতে উড়োজাহাজটির নিখোঁজ আরোহীদের স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা ও তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহের নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী। নিখোঁজ উড়োজাহাজটির ২৯ জন আরোহীর মধ্যে ছয়জন ক্রু সদস্য, এদের মধ্যে দুইজন পাইলট ও একজন নেভিগেটর। বাকী আরোহীদের মধ্যে ভারতীয় বিমান বাহিনীর এক নারী কর্মকর্তাসহ ১১ জন সদস্য, সেনাবাহিনীর দুই সদস্য, কোস্ট গার্ডের একজন এবং নৌবাহিনীর নয়জন ছিলেন। –

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button