বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের জন্য ভেড়ার পিঠে ক্যামেরা!

ঢাকা, ২৭ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

অবশেষে গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের জন্য ফারাও দ্বীপ বাসিন্দারা নিজেরাই ভেড়ার পিঠে বেঁধে দিল ৩৬০ ডিগ্রি ক্যামেরা। বাটকেভ হতে মাউন্ট এভারেস্ট সব জায়গা গুগলের স্ট্রিট ভিউ ক্যামেরার দখলে। কিন্তু উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরের মধ্যখানে অবস্থিত ছোট ও বিচ্ছিন্ন এই দ্বীপটি এখনো গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের আওতাধীন না হওয়ায় এবং অধৈর্য হয়ে দ্বীপ বাসিন্দাদের একজন নিজ উদ্যোগে ‘শিপ ভিউ ৩৬০’ প্রজেক্ট হাতে নেয়।

দ্বীপটির ভেড়ার সংখ্যা (৮০,০০০) মানুষের (৪৯,১৮৮) চেয়েও প্রায় দ্বিগুন।

প্রজেক্টের উদ্যোক্তা দুরিটা ঢাল এন্ড্রিসেন মনে করেন মানুষের চেয়ে ভেড়ার সংখ্যা যেখানে বেশি সেখানে এমনটাই ঘটতে পারে। এ কাজে অ্যান্ড্রিসন পাঁচটি নরম তুলতুলে ভেড়াকে বেছে নিয়ে সেই অনুযায়ী প্রজেক্ট নাম ঠিক করেন।

আর যেহেতু অ্যান্ড্রিসন টিমের গুগল ট্রেকার এবং গাড়িতে অনুপ্রবেশের সুযোগ নেই যে কারণে ভেড়ার পিঠে বর্মের সাথে ক্যামেরা বেঁধে দেয়া হয়।

ক্যামেরাগুলো যাতে সূর্যের শক্তি পায় এজন্য এতে সৌর প্যানেল জুড়ে দেয়া হয়।  এরপর জিপিএস এর মাধ্যমে ধারণকরা ছবি এন্ড্রেসেনের কাছে পৌছে যায়। পরবর্তীতে সেগুলো তিনি স্ট্রিট ভিউতে আপলোড দেন। এতে দ্বীপের মোট ৫টি স্থানের ছবি নেয়া হয়।

অ্যান্ড্রিসেনের এই প্রকল্পের সাফল্য সত্ত্বেও সীমাবদ্ধতা নিয়ে যথেষ্ট সচেতন। কারণ হাজার হলেও একটা ভেড়ার পক্ষে ফারাও  দ্বীপমালার সবগুলো রাস্তা বা পাহাড়ের চূড়ার ছবি তোলা সম্ভব না।

দলটি এছাড়াও এর একটি ভিডিও তৈরি করেন। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ক্যামেরা বাধা ভেড়াটি দ্রুত আইল্যান্ডে দৌড়াচ্ছে আর জাবর কাটছে।
তাই (ভেড়ার চোখে) এখন আপনি দ্বীপপুঞ্জকে আবিস্কার করার সুযোগ পাবেন।

উল্লেখ্য, এই প্রজেক্টের মাধ্যমে গুগলকে প্ররোচিত করতে চাই দলটি যাতে তারা ফারাও দ্বীপে এসে এর পরিপূর্ণ একটা মানচিত্র তৈরি করে।
সেইসাথে রয়েছে ফারাও দ্বীপ ভ্রমণে পর্যটকদের উৎসাহিত করা।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button