খেলাধুলা

হেরাথের ঘূর্ণিতে শ্রীলঙ্কার ঐতিহাসিক জয়!

ঢাকা, ৩০ জুলাই, (ডেইলি টাইমস ২৪):

ঘরের মাটিতে অস্ট্রেলিয়াকে কুপোকাত করে ঐতিহাসিক জয় ছিনিয়ে নিল শ্রীলঙ্কা। টেস্ট ক্রিকেটের এক নম্বর দলকে ১০৬ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে পাল্লেকেলে টেস্ট জিতে সিরিজে এগিয়ে গেল তারা। অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়ে ধ্বংসযজ্ঞ চালান রঙ্গনা হেরাথ। তার বোলিং অসিদের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেয়। এর আগে দ্বিতীয় ইনিংসে ধুঁকতে থাকা শ্রীলঙ্কাকে টেনে তুলেন তরুণ তুর্কি কুশল মেন্ডিস। ৬ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কা যখন ধুঁকছিল তখন ভয়ানক রুপে আবির্ভাব ঘটে এই ২১ বছর বয়সী তরুণের। অসি বোলারদের ছিন্নভিন্ন করে ১৭৬ রানের সময়োপযোগী এক ইনিংস খেলেন। ফলে ফলোঅন এড়িয়ে উল্টো অস্ট্রেলিয়াকে ২৬৮ রানের মোটামুটি বড় টার্গেট দেয় শ্রীলঙ্কা। অসিদের দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকে ১ রানে ফিরিয়ে ধ্বংস শুরু করেন হেরাথ। এরপর উসমান খাজা আর জো বার্নার্স ফিরে গেলে ৩ উইকেটে ৮৩ রানেই চতুর্থ দিন শেষ করে অসিরা। পঞ্চম দিন বৃষ্টির কারণে খেলা শুরু হতে দেরি হয়। এদিনের সমীকরণ ছিল অসিদের চাই ১৮৫ রান আর শ্রীলঙ্কার ৭ উইকেট। পিচ কথা বলছিল স্পীনারদের পক্ষেই। তাই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেন হেরাথ। অসিরা তার বল যেন বুঝতেই পারছিল না।

একে একে তার শিকার হন স্টিভেন স্মিথ(৫৫), এডাম ভোজেস(১২), মিচেল মার্শ(২৫) এবং স্টিভ ও’কেফি (৪)। ততক্ষণে হেরাথের নামের পাশে যুক্ত হয়েছে চোখ ধাঁধানো বোলিং ফিগার-৩৩.৩ ওভার, ১৬ মেডেন, ৫৪ রান এবং ৫ উইকেট! ইকনোমি ১.৬১! সবচেয়ে অদ্ভুত ব্যাপার হলো অসিদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাক্তিগত সর্বোচ্চ রান স্টিভেন স্মিথের ৫৫। আগের ইনিংসে ৩০ রান করে তিনি ছিলেন তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। অসিদের প্রথম ইনিংসে প্রথম ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন যথাক্রমে এডাম ভোজেস(৪৭) এবং মিচেল মার্শ(৩১)। সেই ইনিংসেও হেরাথ ২৫ ওভার বল করে ৮ মেডেন এবং ৪৯ রানের বিনিময়ে নেন ৪ উইকেট। তবু হেরাথের এই খুনে বোলিংয়ের পরও ১৭৬ রানের মহাকাব্যিক ইনিংসের দৌলতে প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ কুশল মেন্ডিস। আগস্টের ৪ তারিখ গল’এ দ্বিতীয় টেস্টে মুখোমুখি হবে দুই দল। তবে এই টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার প্রাপ্তি একটা। সেটা এক বিশ্বরেকর্ড বটে! নবম উইকেট জুটিতে ও’কিফ এবং নেভাল ১৭৮ বলে খেলে করেছেন মাত্র ৪ রান! যেকোনো উইকেট জুটিতেই এক শর বেশি বল খেলে এর চেয়ে কম রান করেনি কোনো জুটি। বলা হয়, টেস্ট ক্রিকেট আসল পরীক্ষা নেয় খেলোয়াড়দের দৃঢ়তার, হার না মানা মানসিকতার। সেটাই দেখিয়ে দিলেন তারা দু’জন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button