খেলাধুলা

রিওতে প্রথম দিনেই মাঠে নামছেন আরচ্যার শ্যামলী রায়

ঢাকা, ১ আগস্ট, (ডেইলি টাইমস ২৪):

আগামী ৫-২১ আগস্ট পর্যন্ত ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিও শহরে শুরু হতে যাচ্ছে বিশ্ব ক্রীড়ার সর্ববৃহৎ আসর ৩১তম অলিম্পিক গেমস। অলিম্পিকের ইতিহাসে এটি ৩১তম আসর হলেও বাংলাদেশের জন্য নবম। ১৯৮৪ সালে লস অ্যাঞ্জেলস অলিম্পিক দিয়ে স্বপ্নের এই ক্রীড়াযজ্ঞে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ শুরু হয়েছিল। এবারের গেমসে বাংলাদেশ পাঁচটি ডিসিপ্লিনে অংশগ্রহণ করবে। গলফ, শুটিং, সাঁতার, অ্যাথলেটিক্স এবং আরচ্যারিতে অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড়ের সংখ্যা সাত। খেলোয়াড়রা হলেন মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান (গলফ), আবদুল্লাহ হেল বাকী (শুটিং), মাহফিজুর রহমান সাগর ও সোনিয়া আক্তার (সাঁতার), মেজবাহ আহমেদ ও শিরিন আক্তার (অ্যাথলেটিক্স) ও শ্যামলী রায় (আরচ্যারি)। রিও গেমসের জন্য বাংলাদেশের সেফ দ্য মিশন (সিডিএম) মনোনীত হয়েছেন লে. জেনারেল আবু তায়েব মুহাম্মদ জহিরুল আলম (অব.)। গেমস শুরুর প্রথম দিনেই বাংলাদেশের ইভেন্ট শুরু হবে। উদ্বোধনী দিনে মাঠে নামবেন গেমসে অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশের একমাত্র আরচ্যার শ্যামলী রায়। স্থানীয় সময় দুপুর ১টায় রিকার্ভ বো ইভেন্টে ব্যক্তিগত র‌্যাংকিং রাউন্ডে শ্যামলীর ইভেন্ট শুরু হবে। সেই বাঁধা পেরুতে পারলে ১/৩২ এলিমিনেশন রাউন্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এরপর ৮ আগস্ট শুটিং রেঞ্জে লড়াইয়ে নামবেন দেশসেরা শুটার আব্দুল্লাহ হেল বাকী। সকাল ৯টায় ১০ মিটার এয়াররাইফেল কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে খেলতে নামবেন গ্ল্যাসগো কমনওয়েলথ গেমসে রৌপ্যজয়ী বাকী। এই রাউন্ড পেরুতে পারলেই ফাইনাল রাউন্ডে খেলা নিশ্চিত হবে। ইতিমধ্যেই শুটিং ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বাকীর জন্য লোভনীয় অর্থ পুরস্কারের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। স্বর্ণপদক জিততে পারলে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে এক কোটি টাকা। সেরা আটে থাকতে পারলেই ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। এ ছাড়া রূপার জন্য ৫০ লাখ টাকা এবং ব্রোঞ্জের জন্য ২৫ লাখ টাকার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া প্রতিটি পদকের জন্য প্রত্যেক ক্রীড়াবিদের ক্ষেত্রে বিওএ ঘোষিত অর্থ পুরস্কার তো রয়েছেই। অলিম্পিকে সেরা আটে ঢোকার জন্য ৬২৭/৬২৮ স্কোর করাই যথেষ্ট বলে ধারণা করা হচ্ছে। কিছুদিন আগে ব্রাজিলে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ৬২২.৮ স্কোর করে তিনি ৩০তম স্থান অর্জন করেছিলেন। ফেডারেশন এই শুটারের পারফরম্যান্সের জন্য সম্ভাব্য সব কিছুই করেছে। অলিম্পিকের কোটা প্লেসের জন্য আন্তর্জাতিক কম্পিটিশনে পাঠিয়েছে। এরপর নিয়ে এসেছে হাই প্রোফাইল ডেনিশ কোচ ক্ল্যাভস ক্রিস্টেনসেনকে। তিনি অলিম্পিকে যাওয়ার আগে বাকীর মানসিক সমস্যা নিয়ে কাজ করেছেন। ১১ আগস্ট রিও অলিম্পিকের গলফ কোর্সে ব্যক্তিগত স্ট্রোক প্লে’তে খেলতে নামবেন প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ থেকে সরাসরি অলিম্পিকে যাওয়া সিদ্দিকুর রহমান। অলিম্পিক র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫৬তম হয়ে সর্বপ্রথম বাংলাদেশী হিসেবে সরাসরি অলিম্পিকে কোয়ালিফাই করা সিদ্দিকুরের বর্তমান বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ৩১০। ১১২ বছর পর পুনরায় অলিম্পিক ইভেন্ট হিসেবে রিওতে গলফ অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় এনিয়ে বাড়তি উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। অলিম্পিক এ্যাকুয়াটিক স্টেডিয়ামে ৬ আগস্ট থেকে সাঁতার প্রতিযোগিতা শুরু হলেও বাংলাদেশের ইভেন্ট শুরু হচ্ছে ১১ আগস্ট। পুরুষদের ৫০ মিটার ফ্রি-স্টাইলে মাহফিজুর রহমান সাগর প্রথম প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নামবেন। ২০১২ সালে লন্ডন অলিম্পিকে এই ইভেন্টে ২৪.৬৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে সাগর ৫৮ জন সাঁতারুর মধ্যে ৩৯তম হয়েছিলেন। বর্তমানে তার সেরা টাইমিং ২৪.০২ সেকেন্ড। ১২ আগস্ট মহিলাদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইল ইভেন্টের হিটে পুলে নামবেন সোনিয়া আক্তার। রিও ডি জেনিরোর ঐতিহাসিক মারাকানা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে রিও গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এই স্টেডিয়ামেই ১২ আগস্ট থেকে শুরু হবে গেমসের সবচেয়ে আকষর্ণীয় ইভেন্ট ট্র্যাক এন্ড ফিল্ডের প্রতিযোগিতা। প্রথম দিনেই স্থানীয় সময় সকাল ১১.৫৫ মিনিটে মহিলাদের ১০০ মিটার স্প্রিন্টের প্রিলিমিনারি রাউন্ডে ট্র্যাকে নামবেন দেশের দ্রুততম মানবী শিরিন আক্তার। শিরিনের ক্যারিয়ার সেরা টাইমিং ১১.৯৯ সেকেন্ড। ইতোমধ্যে তিনি ২০১৪ সালে স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত কমনওলেথ গেমস, একই বছর থাইল্যান্ডের ফুকেটে অনুষ্ঠিত এশিয়ান বিচ গেমস, ২০১৫ সালে চীনের গুয়াংজু নগরীতে অনুষ্ঠিত এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশীপে অংশগ্রহণের অভিজ্ঞতা লাভ করেছেন। এর আগে ২০১৩ সালে ভারতের পুনেতে অনুষ্ঠিত এশিয়ান অ্যাথলেটিকস চ্যাম্পিয়নশীপ, ২০১৩ সালে রাচিতে জুনিয়ার সাফ গেমস ও ২০০৯ সালে ইয়ুথ গেমসে অংশ নেন শিরিন। স্বপ্নের অলিম্পিকে অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়ে শিরিন বলেছেন, ‘অলিম্পিক হচ্ছে বিশ্ব সেরা অ্যাথলেটদের মিলন মেলা। সেখানে অংশগ্রহণ করতে পারাটাই বিশাল ব্যাপার। এত বড় তারকাদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করাটাই আমার কাছে বড় কিছু। তাদের সান্নিধ্য নেয়া, তাদের খেলার ধরন কাছ থেকে দেখার অভিজ্ঞতা আমার পরবর্তী পথ চলায় অনুপ্রেরণা হিসেবে থাকবে। এটাই ছিল আমার অ্যাথলেটিকস জীবনের সবচেয়ে বড় স্বপ্ন। যা পূরণ হবার পথে। এই অনুপ্রেরনণা আমি আসন্ন এসএ গেমসসহ এশিয়ান প্রতিযোগিতায় কাজে লাগাতে চাই।’ শিরিনের ইভেন্টের পরদিন নিজেকে প্রমানের জন্য প্রিলিমিনারি রাউন্ডে ট্র্যাকে নামবেন দেশের দ্রুততম মানব মেজবাহ আহমেদ। মেজবাহর সেরা টাইমিং ১০.৪৩ সেকেন্ড। জাতীয় বিভিন্ন আসরের পাশাপাশি বেশক’টি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করেছেন মেজবাহ। এসব আসর থেকে কোনো পদক জয় করতে না পারলেও চলতি বছরের শুরুর দিকে ভারতের গৌহাটিতে অনুষ্ঠিত এসএ গেমসে নিজের ক্যারিয়ার সেরা টাইমিংটি খুঁজে পেয়েছেন মেজবাহ। এ ছাড়া ২০০৯ সালে সিঙ্গাপুরে এশিয়ান ইয়ুথ গেমস, ২০১২ সালে তুরস্কে বিশ্ব ইনডোর অ্যাথলেটিকস, ২০১৩ সালে রাশিয়ায় বিশ্ব অ্যাথলেটিকস চ্যাম্পিয়নশীপ ও ২০১৪ সালে স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ গেমসে অংশগ্রহণের সুযোগ লাভ করেছেন মেজবাহ। অলিম্পিকে বিশ্ব সেরা তারকাদের ভিড়ে পদক পাওয়ার স্বপ্ন দেখাটা আকাশ-কুসুম কল্পনা বলেই মানছেন তিনি। সেখানে অভিজ্ঞতা অর্জন করাটাই নিজের জন্য সেরা অর্জন উল্লেখ করে মেজবাহ বলেন, ‘এই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে আসন্ন এসএ গেমসসহ অপেক্ষাকৃত ছোট্ট পরিসরের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টগুলোতে স্বর্ণপদক জয় করে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে চাই।’ গতকাল রাত ৯.৩০ মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইন্স যোগে সিডিএম ও অলিম্পিক এ্যাটাচী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুদ্দিন হায়দার (অব.) ব্রাজিলের উদ্দেশ্যে দেশ ত্যাগ করেছেন। আজ সকাল ৬.১৫ মিনিটে টার্কিশ এয়ারলাইন্সে দেশ ত্যাগ করেছেন এ্যাথলেটিক্স ও সাঁতার দল। রাত ৯.৩০ মিনিটে এমিরেটসে আরচ্যারী ও আগামীকাল সকালে টার্কিশ এয়ারলাইন্সে গলফ দল দেশ ছাড়বে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button