জাতীয়

তামাক কোম্পানিগুলোর বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে

ঢাকা, ০২ আগস্ট, (ডেইলি টাইমস ২৪):

তামাক কোম্পানিগুলোর বিভিন্ন প্রলভন থেকে সরকারি কর্মকর্তাদের সর্তক থাকতে হবে। এছাড়া কোম্পানির এই অপপ্রচেষ্টাকে রুখতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আর্টিকেল ৫.৩ সর্ম্পকে অবহিত হতে হবে বলে জানিয়েছেন বক্তারা।

মঙ্গলবার ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের সভাকক্ষে ডাব্লিউবিবি ট্রাস্ট, বাংলাদেশ তামাক বিরোধী জোট ও দ্যা ইউনিয়নের আয়োজনে “তামাক নিয়ন্ত্রণে এফসিটিসি আর্টিকেল ৫.৩ বাস্তবায়ন ও স্থায়িত্বশীল অর্থনৈতিক যোগান নিশ্চিতে করণীয়” শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন। সেমিনারের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলো ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কার্যলয়।

সেমিনারে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার হেলালুদ্দীন আহমেদ, পুলিশ সুপার মো. আবুল বাসার তালুকদার, আনসার ভিডিপির জেলা কমান্ডন্ডেট মো. সাইফুল্লাহ রাসেল, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য পরিচালক কার্যালায়ের উপ পরিচালক  ডা. নাজিব আহমেদ, ডেপুটি সিভিল সার্জন জাকির হোসেন খান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের অতিরিক্ত উপ পরিচালক মো. আবুল কালাম, জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা মো. তারিকউজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ডাব্লিউবিবি ট্রাস্টের প্রোগ্রাম ম্যানেজার সৈয়দা অনন্যা রহমানের সঞ্চালনায় সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডাব্লিউবিবি ট্রাস্টের প্রকল্প কর্মকর্তা শারমিন আক্তার।

হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেন, আর্টিকেল ৫.৩ তে তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমকে তামাক কোম্পানির প্রভাবমুক্ত রাখতে সচ্ছতা ও  জবাবদিহিতা নিশ্চিতের কথা বলা হয়েছে। জনস্বার্থ রক্ষায় ও তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে আর্টিকেল ৫.৩ বিষেয় প্রচারণা করতে হবে। তামাক কোম্পানিগুলো নানাভাবে প্রলুব্ধ করা প্রচেষ্টা করলে সরকারি কর্মকর্তাদের সর্তক থাকতে হবে।

গাউস পিয়ারী বলেন, জনস্বাস্থ্য রক্ষায় তামাক নিয়ন্ত্রণে সরকারের পদক্ষেপ ও অর্জনগুলো তামাক নিয়ন্ত্রণকর্মীদের আশাবাদী করে তোলে। কিন্তু কোম্পানিগুলো সরকারি কর্মকর্তাদের নানাভাবে প্রভাবিতের প্রচেষ্টায় লিপ্ত। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় শুধু তামাক নিয়ন্ত্রণ নয়, পুরো স্বাস্থ্য ব্যবস্থার প্রতি গুরুত্ব দিয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

আবুল বাসার তালুকদার বলেন, তামাক নিয়ন্ত্রণ একটি চ্যালেঞ্জ। এটি যুব সমাজকে ধ্বংস করছে। এক্ষেত্রে আইন বাস্তবায়নের পাশাপাশি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। তামাক কোম্পানিগুলো রাষ্ট্রকে কি পরিমাণ ট্যাক্স দেয় তা হিসাব না করে তামাক গ্রহণের ফলে পরিবেশ, অর্থনীতি ও স্বাস্থ্যগত ক্ষতি বিবেচনায় নেওয়া প্রয়োজন ।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button