জেলার সংবাদ

ছুরিকাহত কলেজছাত্রী খাদিজার অবস্থার অবনতি

ঢাকা, ০৪ অক্টোবর, (ডেইলি টাইমস ২৪):

ছাত্রলীগ নেতা কথিত প্রেমিক বদরুল ইসলামের ছুরিকাঘাতে আহত কলেজ ছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসের অবস্থার অবনতি ঘটেছে।

রাত ১টার দিকে অবস্থার অবনতি হলে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়। ভর্তি করা হয় স্কয়ার হাসপাতালে।

সোমবার বিকালে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ ক্যাম্পাসে খাদিজাকে ছুরিকাঘাত করেন ছাত্রলীগ নেতা বদরুল।

খাদিজা সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। পরীক্ষা শেষে কলেজ থেকে বের হলে খাদিজাকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে কথিত প্রেমিক বদরুল।

এরপর খাদিজাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু রাতে তার অবস্থার অনতি হতে থাকে।

হাসপাতালের উপ-পরিচালক আবদুস সালাম বলেন, চিকিৎসা চলাকালে রাত ১টার দিকে খাদিজার অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে তাকে সিলেট থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

তিনি জানান, খাদিজার মাথায়, হাতে ও পায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। মাথার ক্ষত গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

খাদিজার চাচা আব্দুল কুদ্দুস মোবাইলে ফোনে যুগান্তরকে জানান, ঢাকায় আনার পরেই তার সিটিস্ক্যান করা হয়েছে। ডাক্তাররা জানিয়েছেন অপারেশন করা যাবে, কিন্তু বাঁচার সম্ভাবনা মাত্র ৫ শতাংশ। তবে অলৌকিক ভাবে সে বেঁচে গেলেও আর স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারবে না। এজন্য আমরা এখনও সিদ্ধান্ত নিতে পারছিনা। তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।

এদিকে পুলিশ বদরুলকে আটক করেছে। সে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক এবং অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী।

শাহপরান থানার ওসি শাহজালাল মুন্সি বলেন, বদরুলের সঙ্গে খাদিজার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে বদরুল এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button