বিনোদন

বাবা রজনীকান্ত সম্পর্কে বিস্ময়কর কিছু তথ্য দিলেন মেয়ে সৌন্দর্য

ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর , (ডেইলি টাইমস ২৪):

তিনি একজন বাস কন্ডাক্টর হিসেবে কাজ করেছেন। এবং দেশের একজন মেগাস্টার হওয়ার জন্যও নিজের পথে কাজ করেছেন।

সোমবার ৬৬ বছরে পা রেখেছেন দক্ষিণ ভারতীয় তামিল অভিনেতা রজনীকান্ত। আর এই উপলক্ষে তার কন্যা তার সম্পর্কে বেশ মজার কিছু তথ্য দিয়েছেন।

প্রশ্ন : রজনীকান্ত এতটা বিনয়ী হলেন কী করে?
তিনি খুবই সাধারণ একজন মানুষ। তিনি কখনো ভুলেন না তিনি কোথা থেকে এসেছেন। ছোটবেলায় তিনি আমাকে এবং আমার বোন ঐশ্বরিয়াকে শিখিয়েছেন কখনো নিজের শেকড়কে ভুলে যেও না। তিনি কখনো দ্বিচারিতা করেন না। তিনি যেমন তেমনভাবেই নিজেকে উপস্থাপন করেন। ভক্ত বা সিনেমার প্রডিউসার সবার সঙ্গেই তিনি সমভাবে আচরণ করেন। তিনি সব সময়ই মাটির মানুষ ছিলেন।

প্রশ্ন : রজনীকান্তের শেষ সিনেমা ‘কাবালি’ বক্স অফিস রেকর্ড ভেঙেছে। পরিবারে কি এটা নিয়ে কোনো উদ্বেগ ছিল? ভক্ত এবং সমালোচকরা এতে তার নতুন রূপ দেখে বিস্মিত হয়েছেন।
মালয়েশিয়ার একজন ডনের চরিত্রে অভিনয় করার পুরো বিষয়টিই ছিল বেশ অভিনব। আর এই ধরনের একটি চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়েই তার এই পরিবর্তন। চরিত্রটি তিনি সহজেই ধরতে পেরেছিলেন। কারণ তাকে প্রায় তার বয়সী একজন লোকের চরিত্রেই অভিনয় করতে হয়েছে। এতে নিপীড়িতদের জন্যও একটি বার্তা ছিল। আরা আমার বাবা পরিচালক রঞ্জিতকেও পছন্দ করেছেন এবং রঞ্জিত যে বিষয় নিয়ে কাজ করতে চেয়েছেন তাও পছন্দ করেছেন। তারা প্রবৃত্তিগতভাবে একে অন্যকে গ্রহণ করেছেন।

প্রশ্ন : রজনীকান্তের এর আগের দুটি সিনেমা ভালো করতে না পারায় কি কোনো হতাশা তৈরি হয়েছিল?
অবশ্যই। যেকোনো অভিনেতাই এতে হতাশ হবেন। তবে আমার বাবা তা নিয়ে বেশি মাথা ঘামান না। একটি সিনেমা করার পর তিনি পরে কী করবেন তা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

প্রশ্ন : তার স্বাস্থ্যের অবস্থা কী?
আমার বাবার স্বাস্থ্য এখন ভালো আছে। তবে দীর্ঘদিন পর তিনি পরপর দুটি সিনেমায় কাজ করছেন ‘কাবালি’ এবং ‘২.০’। ‘২.০’ একটি অ্যাকশনধর্মী বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী।

প্রশ্ন : আমরা কি তাকে সামাজিকভাবে আরো প্রাসঙ্গিক ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখব?
আমার বাবার কোনো ক্যারিয়ার পরিকল্পনা নেই। তিনি নান বিষয়ে কাজ করেন। এখনি তিনি ‘২.০’তে কাজ করছেন।

প্রশ্ন : তিনি হিন্দি ভাষায় সিনেমা করছেন না কেন?
রোবোট সিনেমাটির সিক্যুয়েলের একটি স্বাধীন হিন্দি সংস্করণ থাকবে। ভাষা হলো সাংস্কৃতিক মানসিকতা। ভাষায় কোনো ভিন্নতা আসে না। তবে তিনি যদি ভালো কোনো প্রস্তাব পান তাহলে হিন্দি ভাষায়ও সিনেমা করবেন। দিনশেষে তার ভক্তরা কী চান সে ব্যাপারে তিনি সতর্ক আছেন। আর ভক্তদের খুশি করবে এমন সিনেমাতেই তিনি কাজ করেন।
সূত্র : এনডিটিভি

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button