আন্তর্জাতিক

আরও পরমাণু অস্ত্র বাড়াতে চান ট্রাম্প-পুতিন

ঢাকা, ২৩ ডিসেম্বর , (ডেইলি টাইমস ২৪):

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নিজ দেশের পরমাণু অস্ত্র জোরদার ও প্রসারিত করতে চান।

বৃহস্পতিবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা প্রধানদের বার্ষিক বৈঠকের সমাপনী অধিবেশনে দেশটির পারমাণবিক সামর্থ বাড়ানোর আহ্বান জানান পুতিন।

তিনি বলেন, রাশিয়ার সেনাবাহিনী যেকোনো সম্ভাব্য শত্রুকে পরাভূত করার সামর্থ রাখে। তবে তার পারমাণবিক সামর্থ বাড়ানো উচিত।

পুতিন আরও বলেন, ‘আমাদের সেনাবাহিনীর কৌশলগত পরমাণু শক্তি জোরদার করতে হবে। বিশেষ করে পরমাণু অস্ত্রবাহী মিসাইল ব্যবস্থাকে এমনভাবে জোরদার করতে হবে যেন বিদ্যমান ও সম্ভাব্য সব ধরনের মিসাইল প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে আতংকগ্রস্ত করে তুলতে পারে।’

পুতিনের এ বক্তব্যের এক ঘণ্টা পর মার্কিন পরমাণু অস্ত্র প্রসারের আহ্বান জানিয়ে টুইট করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

টুইটে তিনি লেখেন, বিশ্ব এখন পরমাণু শক্তি নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে, তাই যুক্তরাষ্ট্রকেও অবশ্যই তার পরমাণু সামর্থ ব্যাপকভাবে জোরদার এবং বিস্তার ঘটাতে হবে।

ট্রাম্পের ট্রানজিশন (নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ২০ জানুয়ারি ক্ষমতা গ্রহণের আগের সময়) ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের পরমাণু অস্ত্রাগার আধুনিকায়ন করবেন। এর ফলে এটি যুক্তরাষ্ট্রকে যেকোনো হামলা থেকে রক্ষায় কার্যকর প্রতিবন্ধক হিসেবে থাকবে।

এদিকে পরমাণু অস্ত্র বিস্তারের আহ্বান সম্বলিত ট্রাম্পের টুইট সম্পর্কে বৃহস্পতিবার জানতে চাইলে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র জন কিরবি।

তিনি বলেন, নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টের পরমাণু অস্ত্র-সংক্রান্ত দৃষ্টিভঙ্গি অথবা ভবিষ্যতে হতে যাওয়া পরমাণু নীতি নিয়ে আমি কথা বলতে পারব না।

বর্তমানে বিশ্বে ১৫ হাজারেরও বেশি পরমাণু অস্ত্র রয়েছে, যার ৯০ ভাগই যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার কাছে রয়েছে।

এরমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সাত হাজার ১০০টি এবং রাশিয়ার সাত হাজার ৩০০টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে।

আগামী দশকে যুক্তরাষ্ট্রের ব্লাস্টিক মিসাইলবাহী সাবমেরিন, বোমারু বিমান এবং পরমাণু অস্ত্রবাহী ভূমি থেকে উৎক্ষেপণযোগ্য মিসাইলের মেয়াদোত্তীর্ণ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এসব পারমাণবিক অস্ত্র রক্ষণাবেক্ষণ এবং আধুনিকায়নের জন্য আগামী ৩০ বছরে এক ট্রিলিয়ন ডলার খরচ করতে হবে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button