রাজনীতি

গ্রামীণ নাম দেখলে আমরা খুশি হই : গণপূর্তমন্ত্রী

ঢাকা, ২৬ ডিসেম্বর , (ডেইলি টাইমস ২৪):

ড. মুহাম্মদ ইউনূস চট্টগ্রামে নার্সিং কলেজের নকশা জমা দিলে এক সপ্তাহের মধ‌্যে তার অনুমোদন দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন জানিয়েছেন।

নোবেলজয়ী এই বাংলাদেশির অনুযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেছেন, ‘গ্রামীণ কল্যাণ’ এর নামে সিডিএ থেকে দেড় একর জমি নেওয়া হলেও এখনও সেখানে নার্সিং কলেজ প্রতিষ্ঠার নকশা জমা দেওয়া হয়নি।

‘গ্রামীণ’ নাম জড়িত যেকোনো প্রকল্পের সরকারি অনুমোদন পেতে ‘বড় কষ্ট’ হয় বলে শনিবার চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুলের ১৮০ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানে বক্তব‌্যে অভিযোগ করেন গ্রামীণ ব‌্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ব‌্যবস্থাপনা পরিচালক ইউনূস। তিনি বলেন, এখানে ‘গ্রামীণ’ নাম দেখলে কেউ হাত দিতে চায় না।

রবিবার স্কুলের তিন দিনব‌্যাপী এই উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠানে এসে তার কথার জবাব দেন মন্ত্রী মোশাররফ। ”গ্রামীণ দেখলে আমরা খুশিই হই,” ইউনূসকে উদ্দেশ করে বলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস‌্য।

তিনি বলেন, ”উনার অভিযোগের বিষয়ে জানতে সিডিএ চেয়ারম্যান ও সংশ্লিষ্টদের সকালে ডেকেছি। সিডিএ বলেছে, ড. ইউনূস গ্রামীণ কল্যাণ নামে সিডিএ থেকে দেড় একর জমি নিয়েছেন। সিডিএ তা রেজিস্ট্রিও করে দিয়েছে। তবে তিনি নার্সিং কলেজ কিংবা হাসপাতাল করার জন্য কোনো প্ল্যান জমা দেননি। উনাকে আমি শ্রদ্ধা করি, উনি যেদিন নার্সিং কলেজ ও হাসপাতালের জন্য প্ল্যান জমা দেবেন, তার এক সপ্তাহের মধ্যে অনুমোদন দিয়ে দেব, ইনশাল্লাহ। ”

চট্টগ্রাম কলেজিয়েটসের সভাপতি এম এ মালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে স্কুলের সাবেক ছাত্র সংসদ সদস্য মঈন উদ্দিন খান বাদল ও সাবেক সচিব চৌধুরী মো. মহসিন বক্তব্য রাখেন। শেষ দিনের অনুষ্ঠানের রাতে স্মৃতিচারণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button