বিনোদন

মুক্তির পর শাকিব খানের ধূমকেতু’তে নতুন গল্পযোগ!

ঢাকা, ২৭ ডিসেম্বর , (ডেইলি টাইমস ২৪):

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি সিনেমার ইতিহাসে প্রথমবার কোন চলচ্চিত্র মুক্তির পর ত্রিশ মিনিটের মত গল্প যোগ হতে যাচ্ছে। এ রকম ঘটনা এর আগে কখনো ঘটেনাই কোন চলচ্চিত্রে।
এই চলচ্চিত্রের গল্প কাহিনীকার মুনির রেজা এটাই নিশ্চিত করেন। ‘ধূমকেতু’ পরিচালক সফিক হাসান জানান, ‘আসলে চলচ্চিত্রটি মূলত ডিজিটাল ফরমেটে করা হয়েছিল। আর গল্পের প্রয়োজনেই এই ত্রিশ মিনিট যোগ করা হয়েছে। আশা রাখি দর্শক আর হল মালিকরা যেহেতু গল্পটা ৩য় সপ্তাহ পর্যন্ত ধরে রেখেছে। আমি এটা নিশ্চিত যে নতুন দর্শকরাও এ গল্পটা আরো ভালোভাবে বুঝতে পারবে।’
 আর কিছুটা তান্হার তানসিয়ার শটও এ গল্পে যোগ করা হয়েছে বলে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানানো হয়। ​ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের এ বছরের শেষ চলচ্চিত্র ‘ধূমকেতু’।
ইতোমধ্যেও শাকিব ভক্তরা ঈদের পর ‘শিকারী’ সফল ব্যবসার পর এই প্রথম মিডিয়া পাড়ায় আলোড়ন সৃষ্টি করে সফিক হাসান পরিচালিত ‘ধূমকেতু’ চলচ্চিত্রটি।
জাজ মাল্টিমিডিয়া এই চলচ্চিত্রের ১০০ এর বেশি হলে পরিবেশনার দায়িত্ব নেয়। এর পরই শুরু হয় “ধূমকেতুর” নতুন চমক তারা। প্রথম দিন থেকে টানা ৩য় সপ্তাহ পর্যন্ত এই চলচ্চিত্রের শুরু হয় কারিশমা। যদিও দ্বিতীয় সপ্তাহের ৬৫+ যোগ হলেও এই চলচ্চিত্রটি আর সাথে যোগ হয় আরো নতুন ৭০টি হল।
মুন্নি প্রোডাকশনের কর্ণধার মুনির রেজা জানায়, বছর শেষে ব্যবসা তুঙ্গে অনেক টিটকারী মুলক কথা শুনতে হয়েছে শাকিব খানের ধূমকেতু চলচ্চিত্রটি নিয়ে। আমি খুব আশাবাদি ছিলাম এই চলচ্চিত্র নিয়ে। প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত অনেক কান কথা শুনেছি। আমি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রে বিনিয়োগ করতে এসেছি। কিন্তু কিছু দুষ্ট চক্র চায়, আমি যেন কোন ভাবেই ব্যাবসা সফল না হই। আমি শাকিব খানকে নায়ক করে ছবি বানিয়েছি শফিক হাসান নামক একজন নবিন পরিচালককে দিয়ে। আগামী দিনে তো অন্য হিরো আর অন্য পরিচালক দিয়ে চলচ্চিত্র বানাতেই পারি। আমি আগে থেকেই ব্যবসায়ী মানুষ।’
আমাকে সবাই এ রকম হেও প্রতিপণ্য করলে, আমি তো আর এ ব্যবসায়  জড়াবো না। বাংলাদেশের এই একটা বড় সমস্য! কোন মানুষ যদি ভাল কিছু করতে চায় তার পিছনে ৮০/৯০ জন লেগে থাকে। উপরে উঠার সিড়ি থেকে জোর করে নামিয়ে দেয়। সবার মত যদি আমিও বাংলা সিনেমায় বিনিয়োগ করা ছেড়ে দেই। একদিন ঠিকই দেখা যাবে আগের মতই বাংলা চলচ্চিত্র আবার হারিয়েই যেতে বসবে। এত পিছু না লেগে থেকে সবাই একসাথে কাজ করি।
অন্যদিকে পরিচালক সফিক হাসান জানান, ‘মাঝখানে এমন একটি সময় ছিল শাকিব খানের চলচ্চিত্র মানেই ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র। সেটার ধারাবাহিকতা আবার ফিরতে চলেছে। এটা তো মন্দের কিছু নয়। কিছু অসাধু চক্র ও কিছু অনলাইন পোর্টাল নিজের স্বার্থ হাসিল করার জন্য ভিত্তিহীন আজে-বাজে প্রচার করে যাচ্ছে। আমি প্রথম দিনে থেকে ৪র্থ দিন পর্যন্ত নিজে বন্ধুদের সাথে হলে গিয়ে চলচ্চিত্রটি দেখেছি। অনেক প্রশংসাও পেয়েছি। বেশ করে অনেক দর্শকের কাছেও ভাল সাড়া পাচ্ছি। অনেক কাজ নিয়েই অনেকেই কথা বলছে। যা আমার পরবর্তী  কাজে আরোও উৎসাহ যোগাবে। ইতিমধ্যে শাকিব খানকে নিয়ে আবার নতুন চলচ্চিত্র করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। এবারের কাজটি নতুন নায়িকা নিয়ে করবো। যদিও নতুন নায়িকার খোঁজে আছি। পেয়ে গেলে  পরবর্তীতে সবাইকে চলচ্চিত্রের নাম জানাবো।’
Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button