জাতীয়

বাবুল আক্তারকে আবার জিজ্ঞাসাবাদ করবে ডিবি

ঢাকা, ৪ জানুয়ারি , (ডেইলি টাইমস ২৪):

চট্টগ্রামে চাঞ্চল্যকর মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলায় তার স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে আবারও জিজ্ঞাসাবাদ করবেন তদন্ত কর্মকর্তা সিএমপির এডিসি (ডিবি) মো. কামরুজ্জামান।

 রোববার রাতে সিএমপির ডিবি কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বাবুল আক্তারের বাবা-মাকে। তারা তদন্ত কর্মকর্তার মুখোমুখি হয়ে পুত্রবধূ হত্যার বিচার দাবি করেন। তারা বলেন, দুটি ফুটফুটে বাচ্চা থাকতে তাদের মাকে বাবুল আক্তার কেন, কোনো বাবা হত্যা করতে পারে কিংবা হত্যার ইন্ধন দিতে পারে- তা কোনো অবস্থাতে বিশ্বাসযোগ্য নয়। ওইদিন বিকাল পাঁচটা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত বাবুল আক্তারের বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা আবদুল ওয়াদুদ মিয়া ও মা শাহিদা ওয়াদুদের সঙ্গে কথা বলেন তদন্ত কর্মকর্তা।

এর আগে মিতু হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বাবুল আক্তার এবং তার শ্বশুর মোশাররফ হোসেনকে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিএমপির এডিসি (ডিবি) মো. কামরুজ্জামান যুগান্তরকে বলেন, বাবুল আক্তারের বাবা-মাকে মিতু হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে জানাতে চিঠি দেয়া হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে তারা সিএমপিতে এসে রোববার তাদের বক্তব্য পেশ করেছেন। তারা বার বার নিহত পুত্রবধূর হত্যাকারীদের বিচার দাবি করেন। নিহত মিতুর বোন এবং বোনের স্বামীকেও এ মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তদন্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান সেল ফোনে তাদের দু’জনকেও সিএমপিতে আসতে অনুরোধ জানান।

এ মামলার তদন্ত কাজ সম্পন্ন করতে কতদিন লাগবে- এমন প্রশ্নের উত্তরে তদন্ত কর্মকর্তা যুগান্তরকে জানান, এটি একটি আলোচিত হত্যাকাণ্ড। আমরা তড়িঘড়ি করে অসম্পূর্ণভাবে এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দেব না। সবদিক পর্যালোচনা করে এ মামলার সঙ্গে সম্পৃক্ত বা সন্দেহজনক সবার সঙ্গে কথা বলে তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করব। যাতে কোনো ফাঁক-ফোকর না থাকে। মামলা দুর্বল হয়ে না যায়। এ জন্য যতদিন সময় লাগুক আমরা দেব।

গত বছর ৫ জুন নগরীর জিইসি মোড়ে প্রকাশ্যে গুলি ও ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয় বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতুকে। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা তিনজনকে আসামি করে পাঁচলাইশ থানায় মামলা করেন বাবুল। এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ১৫ ডিসেম্বর বাবুল আক্তার এবং ২২ ডিসেম্বর মাহমুদার বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে কথা বলেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। সর্বশেষ রোববার বাবুল আক্তারের মা ও বাবার সঙ্গে কথা বলেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button