আন্তর্জাতিক

গণমাধ্যম মিথ্যা খবর প্রচার করছে : ট্রাম্প

ঢাকা, ৩০ জানুয়ারি , (ডেইলি টাইমস ২৪):

একটি নিরাপদ নীতি গ্রহণ করে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর সব দেশের নাগরিকদের ভিসা দেওয়া হবে বলে জানিছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প।
তিনি আরও বলেন, “পরিষ্কার করে বলছি, এটা মুসলিমদের উপর নিষেধাজ্ঞা নয়।

এমনটা বলে গণমাধ্যম মিথ্যা খবর প্রচার করছে। ”
“এটা ধর্ম সংক্রান্ত বিষয়ে নয়, বরং সন্ত্রাস প্রতিরোধ এবং আমাদের দেশকে নিরাপদ রাখার জন্য এটা করা হয়েছে। বিশ্বজুড়ে মুসলিম অধ্যুষিত আরও ৪০টির বেশি দেশ রয়েছে যাদের ‍উপর এই আদেশের প্রভাব পড়েনি। ”
‘একস্ট্রিম ভেটিং মেজার্স’ এর কথা বলে শুক্রবার ট্রাম্প এক নির্বাহী আদেশে মুসলিম অধ্যুষিত সাত দেশ ইরাক, ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান ও ইয়েমেনের নাগরিকদের উপর ৯০ দিনের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।
সেইসঙ্গে, আগামী চার মাস আর কোনও শরণার্থী যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের সুযোগ পাবে না। সিরীয় শরণার্থীদের ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত।
দ্বৈত-নাগরিক এবং গ্রিনকার্ড হোল্ডাররাও (যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে বসবাসের অনুমতি) এই আদেশের আওতায় বলে জানিয়েছে দেশটির হোমল‌্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট।
ট্রাম্পের ওই আদেশের পর বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে।
এমনকি দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র দেশগুলোর নেতারাও ট্রাম্পের সমালোচনা করেছেন।
ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যঁ মার্ক এয়াউত বলেন, “সন্ত্রাসের কোনো জাতীয়তা নেই। সন্ত্রাসের জবাব বিভেদ হতে পারে না। ”
আরব লীগের পক্ষ থেকেও ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।
ইরান বাদে নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা বাকি ছয়টি দেশই আরব লীগের সদস্য।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button