জেলার সংবাদ

পদ্মার চরে বালুতে বাদাম চাষ

ঢাকা,০৭ ফেব্রুয়ারী , (ডেইলি টাইমস ২৪):

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পদ্মার চরে বালুর মধ্যে বাদামের চাষ করা হয়েছে। চরের প্রায় ৫০ হেক্টর জমিতে বাদামের এই আবাদ করা হয়।

চলতি মৌসুমে পদ্মার চরে বাদামের ভাল ফলন হবে বলে আশাবাদী চাষিরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পদ্মার ১৫টি চর নিয়ে চকরাজাপুর ইউনিয়ন। এই ইউনিয়নের চারদিক দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে পদ্মা নদী। পদ্মা নদীর মধ্যে দাদপুর, পলাশি, পলাশি ফতেপুর, নিচপলাশি, কালিদাশখালি, চকরাজাপুর, বিমানপাড়া, চৌমাদিয়া, টিকটিকিপাড়া, দিয়াড়কাদিরপুর, কাদিরপুর, মানিকেরচর, তেমাদিয়াচরগুলোতে বাদামের চাষ করা হয়েছে।
অন্যান্য বছরের তুলনায় এই বছর ভাল দাম থাকায় চাষিরা বাদাম চাষে ঝুঁকেছে। চরের বালুতে বিঘা প্রতি জমিতে সাত থেকে আট মণ বাদাম হয়। প্রতি মণ বাদাম বাজার মূল্য সাড়ে তিন থেকে চার হাজার টাকা। বাদাম পরিচর্যায় খরচ ও সময় কম লাগে।

চকরাজাপুর চরের বাদাম চাষি আসলাম উদ্দিন বলেন, এবার বাদাম ক্ষেতে পোকার আক্রমণ কম। সার্বক্ষণিক উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেখভাল করেন এবং পরামর্শ দেন। রাজস্ব খাতের অর্থায়নে ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণের সহযোহিতায় আমার রোপণ করা ৫০ সতাংশ জমি প্রদর্শনীয় ক্ষেত হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

পদ্মার চরের চকরাজাপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আজিজুল আযম বলেন,  চরে শুধু বাদাম নয়, আলু, বেগুন, পটল, ধান, গম, সরিষাসহ বিভিন্ন সবজি চাষ হয়। সমতলের চেয়ে চরে বেশি চাষ হয়। ফলনও ভালো হয়। আমি নিজেও এক বিঘা জমিতে বাদাম চাষ করেছি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাবিনা বেগম বলেন, পদ্মার চরে ৫০ হেক্টর জমিতে বাদামের চাষ হয়েছে। তবে আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় চাষিরা সময়মত যত্ন নিচ্ছেন। পদ্মার চরে আগাম জাতের বাদাম চাষে বাম্পার ফলনের আশা করছি।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button