জেলার সংবাদ

গাবতলীতে ঐতিহ্যবাহী বৌ-মেলা, ক্রেতা শুধুই নারীরা

ঢাকা,০৯ ফেব্রুয়ারী , (ডেইলি টাইমস ২৪):

বগুড়ার গাবতলী উপজেলার মহিষাবানে দেড়শ বছরের ঐতিহ্যবাহী পোড়াদহ মেলার পরের দিন বৃহস্পতিবার বসেছিল বৌ মেলা। শুধু শিশু আর নারীদের জন্য আয়োজিত এই মেলা চত্বরের আশপাশে বিপুল সংখ্যক পুরুষ ভিড় করে থাকলেও তাদের মেলায় প্রবেশের কোন অনুমতি ছিলনা। বিক্রেতাদের মধ্যে পুরুষ থাকলেও  শিশু ও নারীরাই ছিল ক্রেতা। সেইসঙ্গে কিছু নারী বিক্রেতাদের নিয়ে জমে উঠেছিল একদিনের এই মেলা।
বগুড়া শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার পূর্বে গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের গোলাবাড়ী বাজার সংলগ্ন ইছামতি নদীর শাখা গাড়ীদহ খালের তীর ঘেঁষে প্রায় দেড়শ‘ বছর আগে থেকে মাঘ মাসের শেষ বুধবার সন্ন্যাসী পূজা উপলক্ষে বসে ঐতিহ্যবাহী পোড়াদহ মেলা। বিশাল আকৃতির মাছের জন্য বিখ্যাত এই মেলা উপলক্ষে আশপাশের ২০টি গ্রামের বাড়িতে শুরু হয় উৎসব। প্রতিটি বাড়িতে নতুন বউ-জামাই যেমন আসেন, তেমনি পুরাতন আত্মীয়রাও কেউ বাদ পড়েননা। কিন্তু সেসব আত্মীয়দের মধ্যে শুধুমাত্র পুরুষরাই পোড়াদহ মেলায় যাওয়ার সুযোগ পান। নিরাপত্তা এবং বিশৃঙ্খলার আশঙ্কায় সে মেলায় নারীরা প্রবেশ করতে পারেন না।
এই অবস্থায় মহিলাদের নিয়ে একটি মেলার আয়োজন করা হয় ২২ বছর আগে। পোড়াদহ মেলার পার্শ্ববর্তী মহিষাবান গ্রামের ভেতরের ফাঁকা জমিতে এই মেলার আয়োজন করেন স্থানীয় মন্ডল ও সরকার বাড়ির লোকজন। এরপর থেকেই পোড়াদহ মেলার পরের দিন মেলা বসছে। মহিলাদের জন্য আয়োজন করা মেলাটি এখন পরিচিতি লাভ করেছে ‘বৌ মেলা’ হিসেবে।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ত্রিপল ও সামিয়ানা টানিয়ে পসরা সাজিয়ে বসেছিল দোকানীরা। মেয়েদের প্রসাধনী সামগ্রীই মেলার প্রধান উপজিব্য হলেও তার সঙ্গে স্থান পায় ছোটদের খেলনা সামগ্রী আর গৃহস্থালীর প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকান। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে ভীড় জমাতে শুরু করেন নারী ও শিশুরা।

বৌ মেলায় কেনাকাটা করতে রাহেলা পারভীন, সাথী, রেহেনা ও হোসনে আরা বেগমসহ স্থানীয় নারীরা জানান, মেলায় শুধুমত্র নারীরাই ক্রেতা, আবার অনেক দোকানে নারীরাই বিক্রেতা হওয়ায় নির্বিঘ্নে ঘুরে বেড়ানো যাচ্ছে, কেনাকাটা করা যাচ্ছে।
দোকানীরা জানান, মেলায় মহিলারাই যেহেতু ক্রেতা, তাই প্রসাধনী সামগ্রীই সেখানে বিক্রি হয় বেশি। মহিলাদের প্রসাধনীর পাশাপাশি শিশুদের খেলনার বিক্রিও ভালো বলে জানান তারা।
এবার মেলার আয়োজক মো. জাহিদুল ইসলাম জানান, পোড়াদহ মেলা উপলক্ষে এখানকার বাসিন্দাদের রেওয়াজ হয়ে উঠেছে আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধবদের নিমন্ত্রণ জানিয়ে খাওয়ানো। কিন্তু সেই সব স্বজনের মধ্যে যেসব নারী আসেন, তারা মেলায় যেতে পারেন না বলে বিষয়টি খুবই পীড়াদায়ক ছিল। একারণেই মূলত বৌ মেলার আয়োজন করা। এখানে যেসব পুরুষ মানুষ সঙ্গে আসছেন তারা নিজেদের ইচ্ছাতেই মেলার ভেতরে ঢোকেন না।
Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button