জেলার সংবাদ

দিনাজপুরে বয়লার বিস্ফোরণে মৃত বেড়ে ১৭

ঢাকা,০৮ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):

দিনাজপুরে বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দগ্ধদের মৃত্যুর তালিকা বেড়ে চলছে।

শনিবার সন্ধ্যায় সাইদুল হক আমলা (৪০) নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

এ নিয়ে ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ জনে।

গত ১৯ এপ্রিল দিনাজপুর সদর উপজেলার গোপালগঞ্জের শেখহাটি এলাকায় যমুনা অটো রাইস মিলে বয়লার বিস্ফোরণে দগ্ধ ৪২ জনের মধ্যে রোববার পর্যন্ত ১৭ জনের মৃত্যুর সংবাদ নিশ্চিত করেছে রংপুর, ঢাকা ও দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (রমেক) বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান ডা. মারুফুল ইসলাম জানান, ১৮দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর শনিবার সর্বশেষ সাইদুল হক আমলা মারা যান।

সাইদুলের বাড়ি দিনাজপুর সদরের চেহেলগাজী ইউনিয়েনের ভবানীপুর গ্রামে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও যারা মারা গেছেন- মকছেদ আলী (৩৫), মো. আরিফুল ইসলাম (৩০), রঞ্জনা রায় (৪০), রোস্তম আলী (৩৫), রনজিৎ বসাক (৫৫), সফিকুল ইসলাম (৩৫), দেলোয়ার হোসেন (২৮), দুলাল চন্দ্র রায় (৩৮), রিপন মিয়া (৩০), মুন্না মিয়া (৩৫), মুকুল রায় (৪৫), উদয় চন্দ্র বর্মণ (৫৫), এনামূল হক (৪০), বীরেন চন্দ্র রায় (৪০), মেকাসেদ আলী (৪৫) ও মনোরঞ্জন রায় (৩৫)।

এদের মধ্যে মকছেদ আলী, রোস্তম আলী ও দেলোয়ার হোসেন একই পরিবারের।

এদিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও তিনজনের অবস্থা গুরুতর বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

অন্যদিকে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে সুমন মিয়াকে (৩৫) ঢাকা মেডিকেলের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টি সার্জারি ইউনিটে পাঠানো হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে হাসপাতালের পরিচালক ডা. সারওয়ার জাহান জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, দিনাজপুর সদর উপজেলার গোপালগঞ্জের শেখহাটি এলাকায় গত ১৯ এপ্রিল যমুনা অটোরাইস মিলে বয়লার বিস্ফোরণে ৪২ জন দগ্ধ হয়।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button