জেলার সংবাদ

কুষ্টিয়ায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে প্রাণ গেল স্কুলছাত্রীর

ঢাকা,১০ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে রুমী (১৭) নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে। এসময় উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০জন আহত হয়েছেন।

এছাড়া উভয় পক্ষের বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ৩০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়েছে।

বুধবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত রুমী বিবদমান মন্ডল গ্রুপের প্রধান সাদ ব্যাপারীর ছেলে আরিফ হোসেনের মেয়ে এবং স্থানীয় কমলাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ওই এলাকায় মন্ডল গ্রুপ ও লস্কর গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে গত কয়েকদিন ধরে এলাকায় কয়েক দফা সংঘর্ষ হয়। সকালে মন্ডল গ্রুপের প্রধান সাদ ব্যাপারীর লোকজন বাড়ির পাশের ভুট্টাক্ষেতে ভুট্টা তুলতে গেলে প্রতিপক্ষ লস্কর গ্রুপের সমর্থকরা বাঁধা দেয়।

এ সময় মন্ডল গ্রুপের সমর্থক স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বর ফিরোজ আহমেদ কটা ও লস্কর গ্রুপের সমর্থক লতিফ মোল্লার নেতৃত্বে উভয়পক্ষের মধ্যে এক দফা সংঘর্ষ হয়। এক সময় মন্ডল গ্রুপের সমর্থকরা পালিয়ে আসে।

পরে আবারো উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় লস্কর গ্রুপের ছোঁড়া ফালা মন্ডল গ্রুপের প্রধান সাদ ব্যাপারীর নাতনী রুমীর বুকে বিদ্ধ হয়। এছাড়া সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০জন আহত হন।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

স্কুলছাত্রীর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে মন্ডল গ্রুপের সমর্থকরা পাহাড়পুর, নুরপুর ও গোপালপুরে লস্কর গ্রুপের সমর্থকদের বেশ কিছু বাড়িঘর ভাংচুর করে ও লুটপাট চালায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ৩০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। বর্তমানে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

কুমারখালী থানার ওসি জিয়াউর রহমান জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ৩০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোঁড়া হয়েছে। অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button